মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর ২০২১, ১২:১৯ অপরাহ্ন

পোরশায় আমন কাটা শুরু ভাল ফলন ও দামে খুশি কৃষক

ডিএম রাশেদ, পোরশা প্রতিনিধি (নওগাঁ) :
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ১০ নভেম্বর, ২০২০
  • ১২৯ বার পঠিত

নওগাঁর পোরশা উপজেলায় উৎসবমুখর পরিবেশে আমন ধান কাটা মাড়াই শুরু করেছেন কৃষকরা। কৃষকদের ঘরে ঘরে বইছে এখন নবান্ন উৎসব উদযাপনের প্রস্ততি। উপজেলার আবাদি জমিগুলোতে এখন সোনালী ধানের ঝিলিক পড়েছে। বাতাসে বইছে আমনের সুঘ্রান। আর কৃষকের মুখে ফুটেছে ফসলের হাসি।

পোরশা উপজেলার মানুষ আশ্বিন ও কার্তিক মাসকে অভাবের মাস বলে থাকেন। অভাবের এ দুই মাস শেষ হতে চলেছে, আর কয়েকদিন পরেই অগ্রহায়ন মাস। কষ্টের ফসল ধান বাড়ীতে উঠতে শুরু করেছে, তাই কৃষকরা যেন শত অভাবের মাঝেও সুখের ঠিকানা খুজে পেয়েছেন। এখন প্রতিটি কৃষক ও গৃহস্থের বাড়িতে চলছে নবান্ন উৎসব উদযাপনরে প্রস্ততি।

উপজেলা কৃষি অফিস জানায়, চলতি মৌসুমে পোরশা উপজেলার ৬টি ইউপিতে সর্বমোট ১৬হাজার ৬৯৫হেক্টর জমিতে আমন চাষের লক্ষ্যমাত্রা থাকলেও লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে আমন চাষ করা হয়েছিল ১৬হাজার ৭১০হেক্টর জমিতে। এর মধ্যে বন্যায় ৮৩ হেক্টর জমির ধান নষ্ট হয়ে গেছে। চলতি মৌসুমে আমনের উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে প্রতি হেক্টরে ৬টন ধান। যার সর্বমোট ধান উৎপাদন হবে ১লক্ষ টন। তবে এবছর লক্ষ মাত্রা ছাড়িয়ে ধানের উৎপাদন হবে বলে আশা করছেন উপজেলা কৃষি অধিদপ্তর।

এদিকে সোনালী ফসল আমন ধানকে ঘিরে নানান স্বপ্ন বাস্তবায়নের জাল বুনেছেন কৃষকরা। কেউ কেউ নতুন ধানের চালের আটার ক্ষীর ও ভাপা পিঠা খাওয়ায় ব্যাস্ত। কেউ বা আবার করছেন রকমারি পিঠা-পুলি আর সুস্বাধু পায়েস। কেউ কিনবেন নতুন নতুন জামা কাপড়, কেউ ডাকছেন মেয়ে জামাইকে, কেউ কেউ দাওয়াত করে খাওয়াবেন প্রিয়জনদের।
সর্বোপরি এ উপজেলার গ্রামে গ্রামে ও মহল্লার প্রতিটি কৃষক ও গৃহস্থের পরিবারে এখন রোপা আমন ধানকে ঘিরে চলছে নানান উৎসব আর নবান্নের আমেজ।

সময়মত আকাশের বৃষ্ঠি পাওয়ায় ও প্রাকৃতিক কোন দুর্যোগ না হওয়ায় ধানের বাম্পার ফলন হচ্ছে বলে জানান কৃষকরা। ধান মেড়েছেন এমন কয়েকজন কৃষকদের সাথে কথা বলে জানাগেছে, এবছর প্রতি বিঘায় (৩৩শতক) জমিতে ১৭-২০মোন করে ধানের ফলন হচ্ছে। আবার কিছু কিছু জমিতে ২২-২৪মোন পর্যন্ত ধানের ফলন আশা করছেন কৃষকরা।
গত সোমবার উপজেলার শিশা বাজারে প্রতি মণ স্বর্ণা-৫ জাতরে ধান বিক্রি হয়েছে ১হাজার ৫০টাকা। গতকাল মঙ্গলবার উপজেলার সাপ্তাহিক হাট গাঙ্গুরিয়ায় প্রতি মণ স্বর্ণা ধান বিক্রি হয়েছে ১হাজার ৩০টাকা পর্যন্ত।

উপজেলার সহড়ন্দ গ্রামের কৃষক জাইদুর রহমান ও বলদাহার গ্রামের কৃষক আব্দুল ওহাব জানান, এবছর ধানের ফলন যেমন ভাল, তেমনি ধানের দামও ভাল। অনেক অয়েক বছর পর এবছর ধানের ভাল দাম পাবেন বলে জানান তারা। তবে মৌসুমের শেষ পর্যন্ত ধানের ভাল দাম থাকলে তারা লাভবান হবেন বলে আশা প্রকাশ করেন।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ মাহফুজ আলম জানান, চলতি মৌসুমে ধান চাষে তেমন বাড়তি খরচ করতে হয়নি কৃষকদের। এবছর ধানের ফলন ভাল হচ্ছে। অন্যদিকে ধানের দামও কয়েক বছরের তুলনায় এবছর অনেক ভাল। কৃষকরা ধান চাষে এবারে লাভবান হবেন বলে তিনি জানান।

Surfe.be - Banner advertising service




নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

এ জাতীয় আরো খবর..

<a href=”https://surfe.be/ext/446180″ target=”_blank”><img src=”https://static.surfe.be/images/banners/en/240x400_1.gif” alt=”Surfe.be – Banner advertising service”></a>

via Imgflip

Surfe.be - Banner advertising service

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি  © All rights reserved © 2011 Gnewsbd24
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazargewsbd451