মঙ্গলবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২১, ০৮:৩৬ পূর্বাহ্ন

সংস্কারের ৫ বছরেও সড়ক থেকে সরেনি বৈদ্যুতিক খুটি

জহুরুল ইসলাম খোকন, সৈয়দপুর প্রতিনিধি (নীলফামারী) ঃ
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ১২ নভেম্বর, ২০২০
  • ১৫৩ বার পঠিত

ওয়াল্ড ব্যাংকের দেওয়া অর্থে উন্নয়ন করা হয়েছে সৈয়দপুর শহরের রাস্তাঘাট সহ ড্রেন। কাগজে কলমে প্রথম শ্রেণির এই পৌরসভাকে বাস্তবে রুপ দিতেই ওয়াল্ড ব্যাংকের এই উদ্যোগ। গত ১৯ মার্চ ২০১৫ সাল থেকে ২০ মার্চ ২০১৬ সালের মধ্যে শহরের শহীদ ডাঃ জিকরুল হক সড়ক, শহীদ ডাঃ সামসুল হক সড়ক ও সিনেমা হল সড়কের উন্নয়ন কাজ সমাপ্তি হলেও সড়কের মধ্যেই রয়ে যায় একাধিক বৈদ্যুতিক খুটি। এর ফলে পথচারী সহ যানবাহন চলাচলে সমস্যার অন্ত নেই। পৌর কর্তৃপক্ষ জনসাধারণের সমস্যা সমাধানে কেন উদ্যোগ নিচ্ছেন না এ নিয়ে সকলকেই ভাবিয়ে তুলেছে।

পৌর কর্তৃপক্ষ জানান, নিউনিসিপ্যাল গভারমেন্ট এন্ড সার্ভিজ প্রজেক্ট (এমজিএসপি) ও এলজিইডি এর ঠিকাদান মাহবুব আলম ওয়াল্ড ব্যাংকের দেওয়া অর্থে সৈয়দপুর শহরের রাস্তাঘাট ও ড্রেন সংস্কার করেন। কিন্তু সংস্কারের প্রায় ৫ বছর পেরিয়ে গেলেও রাস্তার উপর থাকা বৈদ্যুতিক খুটিগুলি সরাননি তিনি। এর ফলে যানবাহন ও পথচারী চলাচলে ব্যাঘাত লাঘবে পৌর কর্তৃপক্ষ ও বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃপক্ষকে কয়েকদফা বলা হলেও কোন কর্ণপাতই করছেন না তারা।

সৈয়দপুর বিদ্যুৎ উন্নয়ন ও বিতরণ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মোরছালিন জানান, সড়ক থেকে বৈদ্যুতিক খুটি সরানোর কোন বাজেট নেই। বাজেট মিললেই খুটিগুলি সরাতে সময় লাগবে না। বিগত ৫ বছর ধরে বিদ্যুৎ বিভাগ এ কথা জানিয়ে আসছেন।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, শহরের শহীদ ডাঃ জিকরুল হক সড়ক ও সিনেমা হল সড়কে একাধিক বৈদ্যুতিক খুটি রয়েছে। বৈদ্যুতিক খুটির উপর কয়েকটি ট্রান্সফর্মারও বিদ্যমান। সামান্য ঝড় বৃষ্টির মধ্যেও আতঙ্কে চলাচল করছেন পথচারীরা।

রিক্সা মজদুর ইউনিয়নের সাবেক নেতা এমএ করিম জানান, পৌর সভার মেয়র আমজাদ হোসেন সরকারের কারণে সৈয়দপুরের আস্তাঘাট (রাস্তাঘাট) চওড়া হইছে। কিন্তু রাস্তার মাঝে যদি বিদ্যুতের খুটি রয়েই যায় তাহলে লাভ কি হলো ।

খুটির নিজ দিয়ে চলাচল করতে গিয়ে শহরের শহীদ ডাঃ জিকরুল হক সড়ক সংলগ্ন হাসান লাইব্রেরীর স্বত্ত্বাধিকারী সাইফুল ইসলাম জানান, জীবনের ঝুকি নিয়েই ট্রান্সর্ফমার নিচ দিয়ে চলাচল করতে হচ্ছে। একই কথা জানালেন শহরের ঢাকা ব্যাংকের কর্মকর্তাও।

সৈয়দপুর ইসলামীয়া স্কুলের শিক্ষার্থী তামান্না ইসলাম জানান, মুন্সিপাড়া সুইপার কলোনী সংলগ্ন রাস্তার উপর ট্রান্সর্ফমারটি ভিষন ঝুকিপূর্ণ। প্রায় সময় সেখান থেকে স্পাকিং হয়। এর পরেও জীবনের ঝুকি নিয়ে স্কুলে যাওয়া আসা করছেন বলে তিনি জানান।

মেয়র আমজাদ হোসেন সরকার জানান, সড়ক গুলি সংস্কারের সময় থেকেই বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃপক্ষকে খুটিগুলি সড়ক থেকে সরানোর তাগিদ দেওয়া হয়েছে । কিন্তু নানান অজুহাত দেখানোর কারণে খুটিগুলি এখনও সড়কে বিদ্যমান । এর ফলে জনসাধারণ এসকল রাস্তা দিয়ে চলাচল করতে গিয়ে দুর্ঘটনার সম্মুখিন হচ্ছে।

 

Surfe.be - Banner advertising service




নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

এ জাতীয় আরো খবর..

<a href=”https://surfe.be/ext/446180″ target=”_blank”><img src=”https://static.surfe.be/images/banners/en/240x400_1.gif” alt=”Surfe.be – Banner advertising service”></a>

via Imgflip

Surfe.be - Banner advertising service

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি  © All rights reserved © 2011 Gnewsbd24
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazargewsbd451