শনিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০১:১৮ পূর্বাহ্ন

রাষ্ট্র ব্যবস্থার যে অর্জন তা দুঃখজনভাবে আমরা হারাতে বসেছি

জি-নিউজবিডি২৪ ডেস্ক :
  • Update Time : বুধবার, ১০ মার্চ, ২০২১

অর্থনৈতিক উন্নয়নের মানদন্ডে জাতিসংঘের স্বীকৃতি ও কারোনা মোকাবেলায় বাংলাদেশের অগ্রগতির খবর সুস্থির হলেও মানবিক মূল্যবোধ, শোষণ-বৈষম্য, নিপীড়নমূলক আইনি কাঠামো দেশের সকল অর্জনকে ম্লান করে দিচ্ছে। অথচ আমাদের মহান সংবিধানে বাক-স্বাধীনতাসহ নাগরিকদের সকল মৌলিক অধিকার নিশ্চিত করা হয়েছে।

মহান মুক্তিযুদ্ধে ৩০ লক্ষ শহীদানের আত্মাহুতির মধ্যদিয়ে স্বাধীন গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র ব্যবস্থার যে অর্জন তা দুঃখজনভাবে আমরা হারাতে বসেছি। রাজনীতিতে অসততা, দুর্বৃত্তায়ন দলীয় সংকীর্ণতা ও সাম্প্রদায়িক শক্তির পৃষ্ঠপোষকতা মুক্তিযুদ্ধের চেতনার পরিপন্থী ও অবমাননাকর। দুঃখজনক সত্য হলো, স্বাধীনতার অল্প সময়ের পর থেকে স্বাধীনতা বিরোধীদের পৃষ্ঠপোষকতা ও পুনর্বাসনের প্রতিযোগিতায় কতিপয় রাজনৈতিক দল শরিক হয়েছে। বিশেষ করে ১৯৭৫ সালে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যার মধ্য দিয়ে তৎকালীন সামরিক সরকারের নেতৃত্বে একটি রাজনৈতিক শক্তি এই অশুভ ধারার প্রতিষ্ঠা লাভে মুখ্য ভূমিকা পালন করে। সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলনের কেন্দ্রীয় কমিটির ঢাকাস্থ নেতৃবৃন্দের সভায় বক্তরা উপরোক্ত মন্তব্য করেন।

সংগঠনের প্রেসিডিয়াম সদস্য অধ্যাপক রোবায়েত ফেরদৌসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় সাংগঠনিক রিপোর্ট পেশ করেন সাধারণ সম্পাদক সালেহ আহেমেদ। আরোচনায় অংশ নেন সাংগঠনের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সানোয়ার হোসেন সামছি, কাজী সালমা সুলতানা, জহিরুল ইসলাম জহির, সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য অলক দাশগুপ্ত, এ্যাডভোকেট পারভেজ হাসেম, কেন্দ্রীয় নেতা ড. সেলুবাসিত, আব্দুল ওয়াহেদ, মহানগর নেতা জাহাঙ্গীর আলম ফজলু, জুবায়ের আলম, গোলাম রসুল, বেলায়েত হোসেন, শাহ আলম শাহাপুরী, জাহাঙ্গীর আলাম প্রমুখ।

সভায় আরো বলা হয়, দেশে প্রচলিত অনেকগুলো আইন বিদ্যমান থাকার পরও আইনের যথাযথ প্রায়োগিক দুর্বলতা সংকীর্ণতা ও ব্যক্তি বিশেষের প্রভাব বিস্তারসহ নানা অনিয়মের ফলে বাল্যবিবাহ, নারী-শিশু নির্যাতন, সংখ্যালঘু আদিবাসী নিপীড়ন, লুটপাট, দুর্নীতি বন্ধ করা যাচ্ছে না। দেশের পারিপার্শিক অবস্থা ও আইনের শাসনের দুর্বলতা প্রতিনিয়ত জনগণকে ভীতসন্ত্রস্ত করে তুলেছে। নারী-শিশু নিপীড়নের ভয়াবহতা ক্রমেই বেড়ে চলেছে। মূলত গণতান্ত্রিক ও রাজনৈতিক শক্তির দুর্বলতা সংকটকে গভীরতর করে তুলেছে। বিচারিক কার্যক্রমের দীর্ঘসূত্রিতায় দূর্বৃত্তরা বেপরোয়া হয়ে ইঠেছে।

অন্যদিকে নিত্য নতুন আইন করার প্রবনতা আইনের প্রতি ভীতি ও অশ্রদ্ধার পাত্র হয়ে দেখা দিয়েছে। সাম্প্রতিক সময়ে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের প্রায়োগিক ব্যবস্থার ত্রুটি-বিচ্যুতি নাগরিকদের ক্ষুদ্ধ ও হতাশার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। সভায় বলা হয়, যে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন, বিশেষ ক্ষমতা আইন, নিপীড়নমূলক সকল আইন প্রত্যাহার করে প্রচলিত মৌলিক আইন সমূহের স্বাভাবিক প্রয়োগের দিক উন্মোচিত করে দেশে আইনের শাসনের পথকে সুগম করতে হবে।

এই সময়ে স্বাধীনতার মূল চেতনায় অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশকে মানবিকতা ও মূল্যবোধের ভিত্তিতে অগ্রসর করার পথ সুগম করা না গেলে মহান মুক্তিযুদ্ধের মূল্যবোধ ও ত্যাগকে স্লান করা হবে। সে বিবেচনা থেকে স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীতে শক্তিশালি গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার অঙ্গীকার জাতির প্রত্যাশা।

সভা দাবি করে যে, সমাজ এবং রাষ্ট্রের সর্বস্তরে স্বচ্ছতা ও জাবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে হবে। ধর্মান্ধতা, কুপমন্ডুকতা, সন্ত্রাসবাদ ও জঙ্গিবাদ কঠোর হস্তে দমন করতে হবে। দুর্নীতি, স্বজনপ্রীতি, লুটপাট বন্ধ করতে হবে। জাতীয় অগ্রযাত্রাকে সমুন্নত রাখার স্বার্থে দেশে গণতান্ত্রিক ধারার রাজনৈতিক শক্তির স্বাভাবিক কার্যক্রম পরিচালনায় বিধি-নিষেধ ও হয়রানি বন্ধ করতে হবে। বাক ও ব্যক্তি স্বাধীনতাসহ মুক্তবুদ্ধির চর্চা নিশ্চিত করতে হবে।

স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীকে সামনে রেখে মহান মুক্তিযুদ্ধের বীর শহীদানের আত্মত্যাগকে সম্মান জানিয়ে সভার এক প্রস্তাবে বলা হয়, ১৯৭১ সালে ৩০ লক্ষ শহীদানের আত্বত্যাগ, দু-লক্ষের অধিক নারীর আত্বত্যাগী জাতীয় জীবনের চরম সংকট মুহুর্তে বন্ধু প্রতীম ভারতসহ যে সকল রাষ্ট্র স্বাধীনতা সংগ্রামে বিভিন্নভাবে বাঙালি জাতিকে সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন আমরা গভীর শ্রদ্ধার সাথে তাদের স্মরণ করছি এবং তাদের ত্যাগের প্রতি সম্মান জ্ঞাপন করছি।

মুক্তিযুদ্ধের মূল্যবোধভিত্তিক সমাজ প্রতিষ্ঠায় সকল গণতন্ত্রমনা রাজনৈতিক, সামাজিক শক্তির কাছে আমাদের আহ্বান। জঙ্গিবাদ, লুটপাট, নারী-শিশু, সংখ্যালঘু নিপীড়নের বিরুদ্ধে সোচ্চার ঐক্যবদ্ধ প্রতিবাদ গড়ে তুলুন। আসুন ঐক্যবদ্ধ হই।

সভায় সংগঠনের জাতীয় সম্মেলনকে সফল করার লক্ষ্যে বিভিন্ন বিষয়ে ব্যাপক আলোচনা ও বিভিন্ন কর্মসূিচ গ্রহণ করা হয়।

Surfe.be - Banner advertising service

https://www.facebook.com/gnewsbd24

Leave a Reply

More News Of This Category
<script async src="https://pagead2.googlesyndication.com/pagead/js/adsbygoogle.js?client=ca-pub-3423136311593782"
     crossorigin="anonymous"></script>
© All rights reserved © 2011 Live Media
কারিগরি সহযোগিতায়: মোঃ শাহরিয়ার হোসাইন
freelancerzone