বুধবার, ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৪:২৬ অপরাহ্ন

জেএফএ কাপের পাওয়ার স্পন্সর ওয়ালটন

স্পোর্টস ডেস্ক :
  • Update Time : শনিবার, ১৩ মার্চ, ২০২১

সোমবার থেকে টানা সপ্তমবারের মতো মাঠে গড়াতে যাচ্ছে জেএফএ (জাপান ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন) কাপ অনূর্ধ্ব-১৪ জাতীয় নারী ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপ-২০২১ এর আঞ্চলিক পর্ব। দেশের সাতটি ভেন্যুতে এই প্রতিযোগিতা শুরু হয়ে চলবে ২১ মার্চ পর্যন্ত। এবারের এই জেএফএ কাপের পাওয়ার স্পন্সর হিসেবে আছে ক্রীড়াবান্ধব প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন গ্রুপ। শনিবার (১৩ মার্চ) বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সভাকক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে ওয়ালটন গ্রুপকে পাওয়ার স্পন্সর হিসেবে ঘোষণা করা হয়। এ নিয়ে সপ্তমবারের মতো জেএফএ কাপের সঙ্গে যুক্ত হলো ওয়ালটন গ্রুপ।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আবু নাঈম সোহাগ, বাফুফের সদস্য ও নারী ফুটবল কমিটির চেয়ারম্যান মিস মাহফুজা আক্তার কিরণ ও ওয়ালটন গ্রুপের নির্বাহী পরিচালক (গেমস অ্যান্ড স্পোর্টস, মার্কেটিং) এফ এম ইকবাল বিন আনোয়ার (ডন) সহ অন্যান্যরা।

এবার ৪২টি দলের অংশগ্রহণে শুরু হচ্ছে নারী ট্যালেন্ট হান্ট টুর্নামেন্ট জেএফএ কাপ। সাতটি ভেন্যুর মধ্যে রয়েছে- মুন্সিগঞ্জের বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ ফ্লাইট লেফটেনান্ট মতিউর রহমান স্টেডিয়াম, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নিয়াজ মোহাম্মদ স্টেডিয়াম, ময়মনসিংহের রফিক উদ্দিন ভূঁইয়া স্টেডিয়াম, দিনাজপুর জেলা স্টেডিয়াম, রাজশাহীর শহীদ কামরুজ্জামান স্টেডিয়াম, খুলনা স্টেডিয়াম ও পটুয়াখালী স্টেডিয়াম।

এবারের আসরের গ্রুপ-১ এ রয়েছে- মুন্সিগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ, চাঁদপুর, মাদারীপুর, ফরিদপুর ও মানিকগঞ্জ জেলা। গ্রুপ-২ এ আছে- ব্রাহ্মণবাড়িয়া, সিলেট, সুনামগঞ্জ, বান্দরবান, ফেনী ও কক্সবাজার জেলা। গ্রুপ-৩ এ রয়েছে ময়মনসিংহ, নেত্রকোনা, শেরপুর, টাঙ্গাইল, জামালপুর ও কিশোরগঞ্জ। গ্রুপ-৪ এ আছে- দিনাজপুর, পঞ্চগড়, নীলফামারি, ঠাকুরগাঁও, লালমনিরহাট ও রংপুর জেলা। গ্রুপ-৫ এ রয়েছে- রাজশাহী, সিরাজগঞ্জ, গাইবান্ধা, মেহেরপুর, ঝিনাইদহ ও নওগাঁ জেলা। গ্রুপ-৬ এ রয়েছে- খুলনা, নড়াইল, রাজবাড়ি, গোপালগঞ্জ, চুয়াডাঙ্গা ও যশোর জেলা। আর গ্রুপ-৭ এ রয়েছে- পটুয়াখালী, বরগুনা, পিরোজপুর, ভোলা, ঝালকাঠী ও মাগুরা জেলা।

জেএফএ কাপের চূড়ান্ত পর্বের চ্যাম্পিয়ন ও রানার্স-আপ দলকে ট্রফি, মেডেল ও প্রাইজমানি (চ্যাম্পিয়ন ৫০ হাজার ও রানার্স-আপ ২৫ হাজার) প্রদান করা হবে। এ ছাড়া ফেয়ার প্লে ট্রফি, টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ গোলদাতা ট্রফি, টুর্নামেন্টের সেরা খেলোয়াড় ট্রফি, সেরা উদীয়মান খেলোয়াড়কে ট্রফি ও সেরা আঞ্চলিক ভেন্যুকে ক্রেস্ট দেওয়া হবে।

সংবাদ সম্মেলনে এফ এম ইকবাল বিন আনোয়ার (ডন) বলেন, ‘করোনার মধ্যে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের অনুমোদিত স্বাস্থ্যবিধি মেনে আমরা বিভিন্ন ধরনের ইভেন্ট আয়োজন করছি। জেএফএ কাপ অনূর্ধ্ব-১৪ জাতীয় নারী ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের সঙ্গে আমরা আগেও ছিলাম; এবারও আছি।

ওয়ালটন পরিবারকে এই সুযোগ করে দেয়ার জন্য মাহফুজা আক্তার কিরণ আপাকে (বাফুফের নারী উইংয়ের চেয়ারম্যান) ধন্যবাদ। জেএফএ কাপ এক ধরনের ট্যালেন্ট হান্ট প্রতিযোগিতা। এখানে যারা ভালো করবে তারাই এক সময় বয়সভিত্তিক ও জাতীয় দলে খেলবে। প্রতিবারের মতো এবারও আমরা আসরের চ্যাম্পিয়ন দল এবং সেরা খেলোয়াড়কে হোম অ্যাপ্লায়েন্স দিয়ে উৎসাহিত করবো।’

মাহফুজা আক্তার কিরণ বলেন, ‘সপ্তমবারের মতো জেএফএ অনূর্ধ্ব-১৪ নারী চ্যাম্পিয়নশিপ মাঠে গড়াতে যাচ্ছে। ২০১৫ সালে আমরা প্রথমবার টুর্নামেন্টটি আয়োজন করি। সেবার ২৮টি দল অংশ নিয়েছিল। এরপর ২০১৬ সালে ৪২টি, ২০১৭ সালে ৩৬টি, ২০১৮ সালে ৩৫টি, ২০১৯ সালে ৩৯টি, ২০২০ সালে ৪৯টি এবং এবার ৪২টি দল অংশ নিচ্ছে।

চ্যাম্পিয়ন দলের জন্য ৫০ হাজার টাকা এবং রানার্স আপ দলকে আমরা ২৫ হাজার টাকা প্রাইজমানি দিবো। এছাড়া অংশগ্রহণ ফিসহ আরো অনেক কিছুই থাকছে। ওয়ালটন পরিবার এবং ডন ভাইকে অসংখ্য ধন্যবাদ। তারা শুধু স্পন্সরশিপই করছে না; হোম অ্যাপ্লায়েন্স দিয়েও নানাভাবে সহায়তা করে। এতে করে মেয়েরা অনেক বেশি উৎসাহিত হয়।

 

Surfe.be - Banner advertising service

https://www.facebook.com/gnewsbd24

Leave a Reply

More News Of This Category
© All rights reserved © 2011 Live Media
কারিগরি সহযোগিতায়: The It Zone
freelancerzone