বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৭:৪৯ পূর্বাহ্ন

কলারোয়া পৌরসভা নির্বাচনে অনিয়ম ও দূর্নীতির অভিযোগের তদন্ত

গাজী যুবায়ের আলম, ব্যুরো প্রধান, খুলনা ঃ
  • Update Time : রবিবার, ১৪ মার্চ, ২০২১

সাতক্ষীরার কলারোয়া পৌরসভা নির্বাচনে ভোট গ্রহণে অনিয়ম ও দূর্নীতির অভিযোগের বিষয় তদন্ত অনুষ্ঠিত হবে ১৫ মার্চ সোমবার। কলারোয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সম্মেলন কক্ষে তদন্ত কমিটির সামনে সকাল সাড়ে ৯টায় আবেদনকারী ও নির্বাচনে দায়িত্ব পালনকারী সংশি¬ষ্টদেরকে হাজির থাকতে বলা হয়েছে।

গত ১১ মার্চ নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের সিনিয়র সহকারী সচিব বিপ¬¬ব দেবনাথ স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে এই তথ্য জানা গেছে। তিন সদস্যের তদন্ত কমিটির সদস্যরা হলেন, ঢাকা আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা, যুগ্ম সচিব, সাইদুন নবী চৌধুরী, নির্বাচন কমিশন কার্যালয়ের উপ-সচিব আব্দুল হালিম এবং নির্বাচন কমিশন কার্যালয়ের সিনিয়র সহকারী সচিব ও তদন্ত কমিটির সদস্য সচিব বিপ¬ব দেবনাথ। তদন্তে নিয়োজিত তিন সদস্যের কমিটিকে আগামী পাঁচ কর্মদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন প্রদানের নির্দেশ দিয়েছেন নির্বাচন কমিশন।

উলে¬খ্য, বিগত ৩০ জানুয়ারী ৩য় ধাপে অনুষ্ঠিত কলারোয়া পৌরসভার নির্বাচনে স্থানীয় প্রশাসনের উপস্থিতিতে ব্যাপক অনিয়ম, সহিংসতা, এজেন্টদের কেন্দ্র থেকে বের করে দেওয়া, তিনটি ব্যালটের মধ্যে মেয়র প্রার্থীর ব্যালট ভোটারকে না দেওয়া, কেন্দ্র দখল করে ব্যালটে সিল মারার ঘটনায় বিএনপি ও এক স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থীসহ একাধিক কাউন্সিলর প্রার্থী নজির বিহীন ভোট কারচুপির অভিযোগ এনে সংবাদ সম্মেলন করে নির্বাচন বর্জন করার ঘোষণা দেন।

এ কারণে গত ৬ ফেব্র“য়ারী বেসরকারিভাবে ঘোষিত কলারোয়া পৌরসভার ফলাফল স্থগিত ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন। অনিয়মের তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য সংশি¬ষ্ট রিটার্নিং কর্মকর্তাকে নির্দেশ দেওয়া হলে দায়িত্বপ্রাপ্ত রিটার্নিং কর্মকর্তার প্রতি অনাস্থা জানিয়ে প্রধান নির্বাচন কর্মকর্তাসহ অন্যান্যদের কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বীতাকারী ২৫ প্রার্থী। ওই আবেদনে তারা উলে¬খ করেন, রিটার্নিং কর্মকর্তাসহ অন্যান্য মহল অভিনব কায়দায়, গায়ের জোরে কলারোয়ার প্রভাবশালীদের নীল নকশায় এই নির্বাচনটি প্রহসনের নির্বাচনে পরিণত হয়।

নির্বাচনের পূর্বে গত ২৮ জানুয়ারি থেকে জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও কলারোয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম লাল্টু গুম হন। প্রার্থীরা রিটার্নিং অফিসারের কাছে মৌখিক ও লিখিতভাবে অভিযোগ করলেও কোন সহযোগিতা পাননি। = তদন্তের দায়িত্ব ওই বিতর্কিত রিটার্নিং অফিসারের উপর ন্যস্ত করা হয়েছে। তার পরিবর্তে কমিশনের উচ্চপদস্থ ও নিরপেক্ষ কোন দায়িত্বশীল কর্মকর্তার মাধ্যমে সরেজমিনে তদন্তপূর্বক দায়ী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের পাশাপাশি অত্র প্রশ্নবিদ্ধ নির্বাচনকে বাতিল করে পূণঃনির্বাচনের দাবি জানান আবেদনকারীরা।

পরে নিরপেক্ষ তদন্ত অনুষ্ঠানের লক্ষে তিন সদস্যের তদন্তম কমিটি গঠন করে নির্বাচন কমিশিন। তদন্তকালে কলারোয়া পৌরসভা নির্বাচনে ভোট গ্রহণে অনিয়ম ও দূর্নীতির অভিযোগের বিষয় আবেদনকারী ও নির্বাচনে দায়িত্ব পালনকারী রির্টানিং অফিসার, সহকারী রির্টানিং অফিসার. থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা, কেন্দ্রের পুলিশ ইনচার্জ, প্রিজাইডিং অফিসার, প্রতিটি কেন্দ্রে একজন করে সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার ও পোলিং অফিসারসহ উলে¬খিত ব্যক্তিগণের শুনানী ও বক্তব্য গ্রহণ করা হবে। এছাড়া নির্বাচনের দিন দায়িত্বে থাকা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটগণের শুনানী আগামী ১৬ মার্চ সকাল সাড়ে ৯টায় সাতক্ষীরা জেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয়ে গ্রহণ করা হবে বলে চিঠিতে জানানো হয়েছে।

Surfe.be - Banner advertising service

https://www.facebook.com/gnewsbd24

Leave a Reply

More News Of This Category
<script async src="https://pagead2.googlesyndication.com/pagead/js/adsbygoogle.js?client=ca-pub-3423136311593782"
     crossorigin="anonymous"></script>
© All rights reserved © 2011 Live Media
কারিগরি সহযোগিতায়: মোঃ শাহরিয়ার হোসাইন
freelancerzone