বুধবার, ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৯:০০ পূর্বাহ্ন

করোনা সংক্রমন. এবার হচ্ছে না খানজাহান মাজার মেলা

বাগেরহাট প্রতিনিধি :
  • Update Time : বুধবার, ২৪ মার্চ, ২০২১

সারা দেশে করোনা সংক্রমন বৃদ্ধি পাওয়ায় সাড়ে ৫‘শ বছরের অধিককাল থেকে চলে আসা ঐতিহ্যবাহী খানহাজান (রহ) মাজার মেলা এবার হচ্ছে না। এছাড়া প্রতিনিয়ত মাজারে আগত দর্শনার্থীরা স্বাস্থ্যবিধি মানছেন না।

খানজাহান (রহ) এর মাজারের প্রধান খাদেম ফকির শের আলী এবারের চৈত্র পূর্নিমায় মেলা না হওয়ার বিষয়টি ণিশ্চিত করেছেন। এদিকে দীর্ঘ দিনের ঐতিহ্যবাহী এই মেলা না হওয়ার খবরে হতাশা প্রকাশ করেছে মাজার ভক্ত ও স্থানীয় ব্যবসায়ীরা।

মাজার সংলগ্ন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী মতিয়ার রহমান, ও কামরুল হাওলাদার বলেন, সারা বছরই মাজার কেন্দ্রিক আমরা শিশুদের খেলনা, মোববাতি, আগরবাতি, তাগিসহ বিভিন্ন বিভিন্ন খাদ্যপন্য বিক্রি করে জীবিকা নির্বাহ করি।

সারা বছরের ক্রয়-বিক্রয়ে যে আয় হয়, তা দিয়ে একধরণের পেটেভাতে খেয়ে পড়ে বেচেঁ থাকি।সারা বছরই আমরা মেলার জন্য অপেক্ষা করি। কারণ চার দিনের এই মেলায় সারা দেশ থেকেই প্রচুর লোক আসেন।

এই সময়ে আমাদের যে আয় হয় তা দিয়ে সন্তানের লেখা পড়ার খরচ ও কিছু সঞ্চয়ও করি। কিন্তু এবছর মাত্র মেলা স্থগিত হওয়ায় আমাদের খুব ক্ষতি হয়ে গেল।

ব্যবসায়ী শেখ মোহাম্মাদ আলী ও হাফিজ শেখ বলেন, মেলা উপলক্ষে আমরা ব্যবসায়ীরা অনেক মালামাল ক্রয় করেছিলাম। হঠাৎ করে মেলা স্থগিত করায় লোকসানের মুখে পড়লাম। এই মালামাল আমরা এখন কি করব। খুব ক্ষতির মুখে পড়লাম।স্বাস্থ্যবিধি মেনে মেলা বাস্তবায়নের দাবি জানান তারা।

খানজাহান (রহ) এর মাজারের প্রধান খাদেম ফকির শের আলী বলেন, খানজাহান আলী (ওরহ) এর মাজারে সাড়ে ৫‘শ বছরের অধিক সময় ধরে প্রতিবছর চৈত্র মাসের পূর্নিমার সময় চারদিন ব্যাপি ধর্মীয় উৎসব, ওরজ, মিলাদ মাহফিল ও মেলার আয়োজন করে আসছি। এই মেলায় সারা দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে লক্ষাধিক দর্শনার্থীরা মেলায় আসেন। কিন্তু এবার করোনার কারণে মেলাটি আমরা করতে পারছি না।

করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে যথারীতি আবারও এখানে উৎসবের আয়োজন করা হবে।করোনা মুক্তির জন্য আল্লাহর কাছে দোয়া করি।ধর্মীয় সমাবেশ উপলক্ষে সারা দেশ থেকে যেসব ভক্তবৃন্দরা মাজারে এসে থাকেন তাদেরও আসতে নিরুৎসাহিত করেন তিনি।

বাগেরহাটের জেলা প্রশাসক আ.ন.ম ফয়জুল হক বলেন, সম্প্রতি করোনা সংক্রোমন বৃদ্ধি পাওয়ায় চৈত্র পূর্নিমায় মাজার সংলগ্ন ধর্মীয় উৎসব ও মেলা হচ্ছে না। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে আগামী বছর আবারও ধর্মীয় উৎসব ও মেলা অনুষ্ঠিত হবে বলে জানান তিনি।

আধ্মাতিক পীর খানজাহান আলী মাজার প্রাঙ্গনে ৫‘শ বছর ধরে চৈত্র মাসের পূর্নিমায় চারদিন ব্যাপি ধর্মীয় উৎসব ও মেলা হয়ে আসছে। ধর্মবর্ণ নির্বিশেষে হাজার হাজার মানুষ এই মেলোয় আসেন।এবছর ২৮ থেকে ৩১ মার্চ পর্যন্ত এই মেলা হওয়ার কথা ছিল।

 

Surfe.be - Banner advertising service

https://www.facebook.com/gnewsbd24

Leave a Reply

More News Of This Category
<script async src="https://pagead2.googlesyndication.com/pagead/js/adsbygoogle.js?client=ca-pub-3423136311593782"
     crossorigin="anonymous"></script>
© All rights reserved © 2011 Live Media
কারিগরি সহযোগিতায়: মোঃ শাহরিয়ার হোসাইন
freelancerzone