শুক্রবার, ২৩ জুলাই ২০২১, ০২:৩২ অপরাহ্ন
শিরোনাম :

Surfe.be - Banner advertising service

মান্দার প্রসাদপুরে নিজ বাড়িতে অবরুদ্ধ এক পরিবারঃ প্রধান মন্ত্রীর কাছে আবেদন

এম এম হারুন আল রশীদ হীরা, মান্দা প্রতিনিধি (নওগাঁ) :
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ১৭ জুন, ২০২১
  • ৩৭ বার পঠিত

নওগাঁর মান্দা উপজেলার প্রসাদপুরে নিজ বাড়িতে প্রায় অবরুদ্ধ জীবনযাপন করতে বাধ্য হচ্ছেন এক অসহায় পরিবার । তাই রাস্তার জন্য এবার প্রধান মন্ত্রীর কাছে আকুল আবেদন জানিয়েছেন অসহায় সাবেক এক ব্যাংকার সামসুল আলম প্রামানিক। বর্তমানে তিনি বাড়িতে অবরুদ্ধ জীবনযাপন করছেন।

কান্না জড়িত কন্ঠে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, রাস্তার ব্যবস্থা না হলে তাকে সেখান থেকে অসহায় মানুষের মতো অপমানিত হয়ে বাড়ি ঘর ছেড়ে রাস্তায় গিয়ে আশ্রয় নিতে হবে। প্রধানমন্ত্রীর নিকট লিখিত এক আবেদনে তিনি আপেক্ষ্য ও দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, ১৯৯৯ সালে তিনি মাত্র ৮.২৫ শতাংশ জমি কিনে সোনালী ব্যাংকের ঋণ সহায়তা নিয়ে বাসযোগ্য একটি বাড়ি নির্মাণ করেছেন।

বাড়িটির অবস্থান বর্তমান প্রসাদপুর ডাকঘর ও প্রসাদপুর সাব রেজিস্ট্রার অফিস সংলগ্ন পূর্বদিকে। প্রায় ২২ বছর যাবত তিনি ও তার পরিবার এ ডাকঘরের উত্তর পার্শ্বের খোলা স্থান দিয়ে পথ চলাচল করে আসছেন। তার স্ত্রী উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা পরিদর্শিকা। তার জমজ তিন সন্তান রয়েছে। দুই ছেলে ও এক মেয়ে (বর্তমানে রাজশাহীতে অর্নাসে ভর্তিইচ্ছু) নিয়ে তাদের সংসার।

তিনি আরো বলেন, আজ পর্যন্ত তিনি কারো সাথে ঝগড়া বিবাদে লিপ্ত হয়েছেন কেউ তা বলতে পারবেনা। তিনি সহজ সরল ও শান্তিপ্রিয় একজন মানুষ। বেশ কিছু আগে প্রসাদপুর ডাকঘর তার সীমানা দেওয়াল নির্মাণ শুরু করেন। এতে আমার বাড়ির পথ চলাচলের একমাত্র রাস্তাটি বর্তমানে বন্ধ হবার উপক্রম হয়ে পড়েছে।

প্রসাদপুর ডাক ঘরের মাস্টার মামুন অর রশিদকে অনেক অনুনয় বিনয় করেও কোন কাজ হয়নি। তার জেদ সেখানে দেওয়াল নির্মাণ করেই ছাড়বে। রাস্তা নিয়ে তার কোন মাথা ব্যথা নেই। তবে সেখানে যদি তার বা অন্য যে কারো বাড়ি হলেও তো রাস্তার খুবই জরুরি প্রয়োজন। প্রশ্নের উত্তরে তিনি জানান, ১ লা মার্চ যে অনাকাঙ্খিত ঘটনা ঘটেছে তা তার জানা নেই। তখন তিনি বাড়িতে ভাত খাচ্ছিলেন।পরে তিনি শুনেছেন। তবে এ ঘটনাটি খুব দুঃখজনক। রাস্তার জন্য শেষ পর্যন্ত পোস্ট মাস্টার জেনারেল রাজশাহীতে গত ৯ জুন গিয়ে তার কাছে অনেক কাকুতি মিনতি করেও কোন লাভ হয়নি।

তিনি সাফ জানিয়ে দিয়েছেন এক ইঞ্চি জায়গাও তিনি ছাড় দিবেন না। এতে করে তিনি বড় অসহায়ের মতো বিভিন্ন স্থানে হন্যে হয়ে ঘুরে ঘিরে ক্লান্ত হয়ে পড়েছেন। তিনি এখন কোথায় যাবেন। কি করবেন, এসব ভেবে ভেবে কোন উপায় না পেয়ে অবশেষে প্রধানমন্ত্রী বরাবর একটি মানবিক আকুল আবেদন জানিয়েছেন। বর্তমানে চলাচলের সেই রাস্তায় জোরপূর্বকভাবে পোস্ট মাস্টার মামুন অর রশিদ সীমানা দেওয়াল নির্মাণ কাজ দ্রুত চালিয়ে যাচ্ছেন।

সরে জমিনে সেখানে গিয়ে দেখা যায়,ভূক্তভোগি সামসুল আলম প্রামানিকের বাড়ির প্রায় ভেতরে আরসিসি পিলার দেওয়া হয়েছে। হয়ত পাঁচ/ সাত দিনের মধ্যে সেখানে পুরো দেওয়াল নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হয়ে যাবে। এতে তিনি তার পরিবার নিয়ে সেই বাড়ির মধ্যে অবরুদ্ধ হয়ে পড়বেন। ফলে তিনি ও তার পরিবারের সদস্যরা বাড়ি থেকে বের হতে পারবেন না।

এ আশংকায় ও চিন্তায় তিনি বেঁহুশ হয়ে পড়েছেন। তিনি এমনিতেই ডায়াবেটিস ও হার্টের অসুখে ভুগছেন।তাই এখন সেই অসুস্থতা আরো বেড়ে হয়ে পড়েছেন নিরব। তার এ বেহাল দশা ও অসহায় অবস্থা থেকে উত্তরণে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

তবে প্রধানমন্ত্রী কখন কিভাবে তার এ আকুল আবেদনে সাড়া দেন তার উপর তার ভাগ্য নির্ভর করছে। এছাড়া তার আর কোথায় যাবার পথ নেই।
এ ব্যাপারটি নিয়ে সচিত্র প্রতিবেদন প্রকাশে পত্রিকা ও টিভি সাংবাদিকদের একান্ত সহযোগিতা কামনা করেছেন তিনি। যাতে বিষয়টি প্রধানমন্ত্রীর নজরে পড়ে।

Surfe.be - Banner advertising service

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

<a href=”https://surfe.be/ext/446180″ target=”_blank”><img src=”https://static.surfe.be/images/banners/en/240x400_1.gif” alt=”Surfe.be – Banner advertising service”></a>

via Imgflip

Surfe.be - Banner advertising service

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি  © All rights reserved © 2011 Gnewsbd24
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazargewsbd451