রবিবার, ০১ অগাস্ট ২০২১, ০৭:২৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
পত্নীতলায় কঠোর লকডাউনেও মানছে না স্বাস্থ্যবিধি, জরিমানা আদায় অব্যাহত করোনায় প্রাণ গেল গলাচিপায় এটিইও আশ্রয়স্থল হয়েছে এখন কর্মসংস্থানও হবে- জেলা প্রশাসক দিনাজপুর স্কুল ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করার প্রতিবাদে ভাইকে মারধর বগুড়ায় আ.লীগ নেতা রকি হত্যাকাণ্ডের মূল আসামীসহ সাতজনকে গ্রেফতার কর্মস্থলে পৌঁছতে ভোলার ইলিশাঘাটে রাজধানীমুখী যাত্রীদেরে উপচে পড়া ভীর সোনারগাঁয়ের হরিহরদি এলাকায় ইটের সড়ক নির্মাণ মুন্সীগঞ্জে মিশুক উদ্ধার করে মালিকের কাছে হস্তান্তর করলো পুলিশ মাগুরার সাংবাদিক হেলাল হোসেন সস্ত্রীক করোনায় আক্রান্ত মুন্সীগঞ্জে করোনা কালীন কর্মহীদের মাঝে খাদ্য সহায়তা

Surfe.be - Banner advertising service

পোরশায় আমের দামে ধস, লোকসানের মুখে চাষী ব্যবসায়ী

ডিএম রাশেদ, পোরশা প্রতিনিধি (নওগাঁ) :
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন, ২০২১
  • ২৯ বার পঠিত

করোনা ভাইরাস ও লকডাউনের প্রভাবে নওগাঁর পোরশায় আমের দামে ধস নেমেছে। আম বাজারে ক্রেতার সংখ্যা কমেছে। নেই বাইরের জেলা থেকে আগত কোন ক্রেতা। ক্রেতা সংকটে চলতি ভরা আম মৌসুমে আমের দাম নেই। লোকসানের মুখে পড়েছেন আম চাষী ও ব্যবসায়ীরা।

গত কয়েকদিন উপজেলার সারাইগাছী, নোচনাহার, পোরশা সদর, তেঁতুলিয়া আমের বাজার ঘুরে দেখা গেছে, বর্তমানে হিমসাগর(খিরসাপাত), ল্যাংড়া, ফজলি ও আমরুপালী জাতের আম বাজারে কেনা-বেচা চলছে। বর্তমান বাজারে এক মোন হিমসাগর বা খিরসাপাত আম বিক্রি হচ্ছে ১২শ টাকায়, ল্যাংড়া আম বিক্রি হচ্ছে মাত্র ৬শ থেকে ৯শ টাকা পর্যন্ত। ফজলি আম বিক্রি হচ্ছে ৭শ থেকে ৮শ টাকা ও আমরুপালী বিক্রি হচ্ছে ১হাজার থেকে ১৩শ টাকা পর্যন্ত।

অথচ গত বছর এ সময়ে হিমসাগর বা খিরসাপাত আম বিক্রি হয়েছে ৩হাজার ৫শ টাকা পর্যন্ত, ল্যাংড়া বিক্রি হয়েছে ৩হাজার টাকা পর্যন্ত, ফজলি বিক্রি হয়েছে ২২শ টাকা পর্যন্ত, আমরুপালী বিক্রি হয়েছে ৩হাজার থেকে শুরু করে ৬হাজার টাকা পর্যন্ত।

এবছর বাজারে আমের ক্রেতা কম থাকায়, বিশেষ করে বাইরের বিভিন্ন জেলাগুলোতে কঠোর লকডাউনের কারনে বাইরের জেলা থেকে কোন ক্রেতা আসতে পারেননি। আর বাইরের কোন ক্রেতা না থাকায় এবছর আমের দাম একেবারেই কম। আমের দাম না পাওয়ায় চাষী ও ব্যবসায়ীরা চরম আর্থিক ক্ষতির মধ্যে পড়তে যাচ্ছেন।

উপজেলার সারাইগাছী বাজারের আম ব্যবসায়ী সজল মিয়া জানান, আমের ভরা মৌসুমে বাজারে ক্রেতার উপস্থিতি স্বতঃস্ফূর্ত হওয়ার কথা থাকলেও তা হয়নি। করোনা সংক্রমণ ও লকডাউনের প্রভাবে আমের বাজারে শুধু ক্রেতা কমই নয়, ব্যাপাক ভাবে কমেছে আমের দামও। আম পেকে গাছ থেকে পড়ে যাচ্ছে। ব্যবসায়ীরা গাছে বেশি দাম দিয়ে আম কিনে, কম দামে বিক্রি করতে বাধ্য হচ্ছেন বলেও তিনি জানান।

বৃহস্পতিবার সারাইগাছী বাজারে বিক্রি করতে আসা আম চাষী সবুজ জানান, করোনার মধ্যেও হাটে প্রচুর আম উঠছে। সেই তুলনায় আমের ক্রেতা কম। আম বেশি, ক্রেতা কম। তাই আড়ৎদাররা আমের দাম দিচ্ছে না। তাই বাধ্য হয়ে কম দামে আম বিক্রি করতে হচ্ছে।

 

Surfe.be - Banner advertising service

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

<a href=”https://surfe.be/ext/446180″ target=”_blank”><img src=”https://static.surfe.be/images/banners/en/240x400_1.gif” alt=”Surfe.be – Banner advertising service”></a>

via Imgflip

Surfe.be - Banner advertising service

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি  © All rights reserved © 2011 Gnewsbd24
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazargewsbd451