রবিবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২২, ০৮:০০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :

কলাপাড়ায় অরক্ষিত বেড়িবাঁধে আতংকে সাধারন মানুষ

রাসেল কবির মুরাদ, কলাপাড়া প্রতিনিধি (পটুয়াখালী) ঃ
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ২৬ জুন, ২০২১
  • ৬৮ বার পঠিত

কলাপাড়ায় ৩৩০ কিলোমিটার সামুদ্রিক জলোচ্ছ্বাস নিয়ন্ত্রন বেড়িবাঁধই ঝুকিপূর্ন অবস্থায় আছে। এরমধ্যে ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের সময় ৭.৭ কিলোমিটার ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এরফলে ঝড়-জলোচ্ছ্বাসের সময় উপকূলবর্তী এ এলাকার মানুষ থাকে ব্যাপক আতংকের মধ্যে।

খেপুপাড়া পানি উন্নয়ন বোর্ড উপ-বিভাগের তথ্যানুসারে, ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের সময় ৪৭/১ নম্বর পোল্ডারের নিজামপুর পয়েন্টে ১ দশমিক ৫০ কিলোমিটার, ৫৪/এ নম্বর পোল্ডারের দেবপুর পয়েন্টে ১ দশমিক ৫০ কিলোমিটার, ৫৪/এ নম্বর পোল্ডারের গন্ডামারি পয়েন্টে দশমিক ৩০ কিলোমিটার, ৪৭/৪ নম্বর পোল্ডারের ধূলাসার পয়েন্টে দশমিক ৩৩৫ কিলোমিটার, ৪৭/৫ নম্বর পোল্ডারের পশরবুনিয়া পয়েন্টে দশমিক ১১ কিলোমিটার জোয়ারের পানির তোড়ে বিধ্বস্ত হয়ে গেছে।

এর মধ্যে ৪৭/১ নম্বর পোল্ডারের নিজামপুর পয়েন্টে ১ দশমিক ৫০ কিলোমিটার ও ৪৭/৪ নম্বর পোল্ডারের ধূলাসার পয়েন্টে দশমিক ৩৩৫ কিলোমিটার বেড়িবাঁধ জরুরী সংস্কারের কাজ চলছে। বাকি বেড়িবাঁধ বিধ্বস্ত অবস্থায় পড়ে রয়েছে। এর মধে লালুয়া ইউনিয়নের প্রায় ৭ কিলোমিটার বেড়িবাঁধ সিডরের সময় বিধ্বস্ত হওয়ার পর থেকে আর সংস্কার করা হয়নি।

বর্তমানে গোটা লালুয়া ইউনিয়ন ঝড়-জলোচ্ছ্বাসের সময় থাকে। শুধু তাই নয়। বেড়িবাঁধ না থাকায় প্রতিদিন দু”বার জোয়ারের পানিতে তলিয়ে যায়। এসময় লালুয়া ইউনিয়নের মোট ২৬টি গ্রামের ২৩টি গ্রামই থাকে পানির নিচে। অমাবস্যা কিংবা পূর্ণিমার জো’তে দূর্ভোগ চরমে থাকে। প্রতিদিন দু’বার পানি ওঠা-নামা করায় এলাকার মাটির রাস্তাগুলো নিশ্চিহ্ন হয়ে গেছে।

লালুয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো: শওকত হোসেন তপন বিশ^াস এ প্রতিবেদককে বলেন, এ ইউনিয়নে পাকা সড়ক আছে ৫ কিলোমিটার এবং কাঁচা সড়ক আছে ২০ কিলোমিটার। ইউনিয়নের প্রায় ৭ কিলোমিটার বেড়িবাঁধ সিডরের সময় বিধ্বস্ত হয়। ঘূর্ণিঝড় ইয়াসে প্রায় এক কিলোমিটার বেড়িবাঁধ বিধ্বস্ত হয়ে ৮ কিলোমিটার বিধ্বস্ত বেড়িবাঁধ দিয়ে দিনে দুইবার জোয়ারের পানিতে তলিয়ে যায়। সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয় অমাবস্যা ও পূনিমার জোয়ারে। জোয়ার-ভাটার কারনে লালুয়ার ২০ কিলোমিটার কাঁচা সড়ক অনেকটা মাটির সাথে মিশে গেছে। অরক্ষিত বেড়িবাঁধের কারনে ইউনিয়নের মানুষ সাগরে নি¤œচাপ সৃষ্টির খবর পেলেই থাকে আতঙ্কে।

খেপুপাড়া পানি উন্নয়ন বোর্ড উপ-বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মো: হালিম সালেহী গনমাধ্যমকে বলেন, অক্ষত বেঢ়িবাঁধগুলোর মধ্যে ৪৭/১ নম্বর পোল্ডারের নিজামপুর পয়েন্টে ১ দশমিক ৫০ কিলোমিটার, ৪৭/৪ নম্বর পোল্ডারের ধূলাসার পয়েন্টে দশমিক ৩৩৫ কিলোমিটার ও কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকতে জরুরী ভিক্তিতে সংস্কার কাজ চলছে। বাকি অক্ষত বেড়িবাঁধ পূন:সংস্কার প্রকল্প প্রণয়ন চলছে, যা আগামী ২ মাসের মধ্যে মন্ত্রনালয়ে পাঠানো হবে। কুয়াকাটা স্থায়ী বীচ রক্ষা উন্নয়ন প্রকল্পে ৭৫০ কোটি টাকা চেয়ে মন্ত্রনালয়ে প্রেরন করা হয়েছে।

 

Surfe.be - Banner advertising service




নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

<a href=”https://surfe.be/ext/446180″ target=”_blank”><img src=”https://static.surfe.be/images/banners/en/240x400_1.gif” alt=”Surfe.be – Banner advertising service”></a>

via Imgflip

Surfe.be - Banner advertising service

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি  © All rights reserved © 2011 Gnewsbd24
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazargewsbd451