বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ০৩:৩০ পূর্বাহ্ন

আবারো কুয়াকাটা সৈকতে শ্রোতে ভেসে এলো একটি মৃত ডলফিন

রাসেল কবির মুরাদ, কলাপাড়া প্রতিনিধি (পটুয়াখালী) ঃ
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ৭ আগস্ট, ২০২১
  • ৩৬ বার পঠিত

কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকতের বালুচরে আবারও একটি মৃত ডলফিন ভেসে এসেছে। শনিবার শেষ বিকেলে জোয়ারে ভেসে এসে কুয়াকাটা সৈকতের পশ্চিম দিকের খাজুরা এলাকায় আটকা পড়ে ডলফিনটি । আবদুল গফফার নামের এক জেলে এ প্রতিনিধিকে বলেন, মৃত ডলফিনটির পিঠের দিকটা মোটা এবং নিচের দিকটা সাদা-গোলাপি রঙয়ের। এর মুখে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তা ছাড়া মুখটা রক্তাক্ত ছিল এবং মুখে জালের ছেড়া অংশ পেঁচানো রয়েছে। ডলফিনটি ৬-৭ ফুট লম্বা হবে।

স্থানীয় সূত্র ও জেলেরা এ প্রতিবেদককে জানায়, বছরের প্রায় সময়ই সৈকতে মৃত ডলফিন ভেসে আসে। এগুলোর বেশিরভাগ জালে আটকে বা ট্রলারের সঙ্গে ধাক্কা লেগে মারা যায়। এ বছরের প্রথম দিকেও তিন-চারটি মৃত ডলফিন কুয়াকাটা সৈকতে ভেসে এসে আটকা পড়েছিল।

মৎস্য অধিদপ্তর বরিশালের সাসটেইনাবল কোস্টাল অ্যান্ড মেরিন ফিশারিজ প্রকল্পের উপ-প্রকল্প পরিচালক মো: কামরুল ইসলাম গনমাধ্যমকে বলেন, বঙ্গোপসাগরে দুই প্রজাতির ডলফিন পাওয়া যায়। একটি হলো বটল নোজ (বোতলের মতো মুখ) এবং আরেকটি হলো হাম্পব্যাক ডলফিন (পিঠের দিকটা সামান্য ভাঁজ ও কুঁজো)। কুয়াকাটা সৈকতে ভেসে আসা মৃত ডলফিনটিও হলো হাম্পব্যাক ডলফিন। এর বৈজ্ঞানিক নাম Sousa plumbea । এটি ইন্দোপ্যাসিফিক Sousa chinensis অধিগোত্রীয় বলে ধরা হয়।

ভারত মহাসাগর ও বঙ্গোপসাগরের অগভীর অঞ্চলে Sousa plumbea প্রজাতির ডলফিনের আধিক্যতা লক্ষ্য করা যায়। এর পিঠের অংশ সামান্য উচু তাই একে কুঁজো ডলফিন বা Plumb back বলা হয়। এর সামনের চোঁয়াল বেশ লম্বা এবং ৩০-৩৪ টি দাঁত যুক্ত। ভারত মহাসাগর ও বঙ্গোপসাগরের হাম্পব্যাক ডলফিনের অফশোর রেঞ্জ মূলত উপকূলরেখার নির্দিষ্ট ভৌগোলিক বৈশিষ্ট্যের ওপর নির্ভরশীল। প্রজাতিটি প্রায প্রতিটি ধরণের উপকূলীয আবাসস্থলে বাস করে বলে জানা গেছে।

যদিও যে কোনো আবাসস্থল এদের পছন্দ এবং প্রাধান্য ভৌগোলিক অবস্থানের ওপর অত্যন্ত নির্ভরশীল। ভারত মহাসাগরের হাম্পব্যাক ডলফিনগুলি পরিবেশ দূষণ, আবাসস্থলের অবনতি এবং শব্দ দূষণের মতো নৃতাত্ত্বিক বিঘ্নের কারণে মারা যায় অনেক বেশি । ভারত মহাসাগরের হাম্পব্যাক ডলফিন হলো সামাজিক ডেলফিনিড যা বারো জনের দলে বাস করে।

যদিও এ গোষ্ঠীর আকার অত্যন্ত পরিবর্তনশীল হতে পারে। এগুলোর খাদ্যের সিংহভাগ সায়েনিড মাছ, সেফালোপড এবং ক্রাস্টেসিযান দ্বারা গঠিত । ধৃত ডলফিনটি হাম্পব্যাক ডলফিন হওয়ায় এবং চোয়ালে অসংখ্য দাঁত সন্নিবেশিত থাকায় মাছ ধরার জালে আটকে পড়ে মারা গেছে বলে মনে হচ্ছে। কারণ চোয়ালের দাঁতে জালের অংশ বিশেষ পেঁচানো অবস্থায় রয়েছে।

কলাপাড়া উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা অপু সাহা সাংবাদিকদের বলেন, সৈকতে ভেসে আসা ডলফিনটি ঠিক কি কারণে মারা গেছে তা বলা যাচ্ছে না। মৃত ডলফিনটিকে মাটি চাপা দেয়া হয়েছে।

Surfe.be - Banner advertising service




নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

<a href=”https://surfe.be/ext/446180″ target=”_blank”><img src=”https://static.surfe.be/images/banners/en/240x400_1.gif” alt=”Surfe.be – Banner advertising service”></a>

via Imgflip

Surfe.be - Banner advertising service

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি  © All rights reserved © 2011 Gnewsbd24
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazargewsbd451