বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ০৩:৩০ পূর্বাহ্ন

কালিয়াকৈরে ইউএনও’র হস্তক্ষেপে গভীররাতে বন্ধ হল এক বাল্যবিবাহ

সাগর আহম্মেদ, কালিয়াকৈর প্রতিনিধি (গাজীপুর) :
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ১৭ আগস্ট, ২০২১
  • ৪৩ বার পঠিত

গাজীপুরের কালিয়াকৈরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) তাজওয়ার আকরাম সাকাপি ইবনে সাজ্জাদের হস্তক্ষেপে গত সোমবার গভীর রাতে একটি বাল্য বিবাহ বন্ধ হয়েছে। এতে বাল্য বিবাহের অভিশাপের হাত থেকে রক্ষা পেল ৭ম শ্রেনীর এক ছাত্রী। এতে প্রশংসিত হন ওই ইউএনও।

এলাকাবাসী ও উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, কালিয়াকৈর উপজেলার বোয়ালী ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের পাবুরিয়াচালা এলাকায় গত সোমবার রাত এ ঘটনা ঘটে। ওই এলাকার আলতাফ হোসেনের ৭ম শ্রেনীতে পড়–য়া মেয়ের সঙ্গে পারিবারিকভাবে গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার মাওনা এলাকার আনোয়ার হোসেন ছেলে শফিকুল ইসলামের বিয়ে ঠিক হয়।

এ ধারাবাহিকতায় গত সোমবার রাতে তাদের দুজনের বিয়ে হচ্ছিল। এমন খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) তাজওয়ার আকরাম সাকাপি ইবনে সাজ্জাদসহ উপজেলা প্রশাসনের কয়েকজন কর্মকর্তা-কর্মচারী রাত সাড়ে ১২টার দিকে ওই ছাত্রীর বাড়িতে যান।

উপজেলা প্রশাসনের লোকজনের উপস্থিতি টের পেয়ে বর ও কনের লোকজন অন্যত্র পালিয়ে যায়। এ সময় উপজেলা প্রশাসনের লোকজন ওই কনের বাড়ি থেকে এক স্বজনকে উপজেলায় নিয়ে আসে এবং কনের পরিবারকে ডেকে পাঠানো হয়। পরে মেয়ের বাবা আলতাফ হোসেন, স্থানীয় ইউপি সদস্যসহ কয়েকজন উপজেলা আসেন।

এসময় মেয়ের বাবা ১৮ বছরের আগে তার বিয়ে দিবে না মর্মে লিখিত মুচলেকা দেন। পরে সেখান থেকে কনের ওই স্বজনকে ছাড়িয়ে নিয়ে যান কনের পরিবার। এতে একটি মেয়ে বাল্য বিবাহের অভিশাপ থেকে মুক্ত হল।

এসময় উপস্থিত ছিলেন- উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আহমদ রেজা আল মামুন, উপজেলা পল্লী উন্নয়ন কর্মকর্তা আব্দুস সাত্তার, উপজেলা সিএ নুরুজ্জামান, স্থানীয় ইউপি সদস্যসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ। এ দিকে ওই বাল্য বিবাহ বন্ধ করায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ওই এলাকায় প্রশংসিত হন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) তাজওয়ার আকরাম সাকাপি ইবনে সাজ্জাদ জানান, ওই এলাকায় বাল্য বিবাহ হচ্ছে, এমন খবর পেয়ে সেখানে যাই। কিন্তু আমাদের উপস্থিতি টের পেয়ে বর-কনের পরিবার পরিবার সেখান থেকে অন্যত্র পালিয়ে যায়।

এ সময় এলাকাবাসীকে বাল্য বিবাহের বিষয়ে সর্তক করাও হয়েছে। পরে কনের পরিবারকে উপজেলায় ডেকে পাঠায় এবং মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়। তবে এ উপজেলার যেখানেই বাল্য বিবাহের খবর পাবো, সেখানে গিয়ে তা বন্ধ করে দেওয়া হবে।

Surfe.be - Banner advertising service




নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

<a href=”https://surfe.be/ext/446180″ target=”_blank”><img src=”https://static.surfe.be/images/banners/en/240x400_1.gif” alt=”Surfe.be – Banner advertising service”></a>

via Imgflip

Surfe.be - Banner advertising service

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি  © All rights reserved © 2011 Gnewsbd24
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazargewsbd451