মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর ২০২১, ০২:১৫ পূর্বাহ্ন

দিনাজপুরে উন্নত প্রজাতির গাড়ল পালনে অনেকের ভাগ্য বদল

বিশেষ প্রতিনিধি দিনাজপুর ঃ
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ২৭ আগস্ট, ২০২১
  • ৫৪ বার পঠিত

খরচ কম, লাভ বেশী হওয়ায় এবং এর চাহিদা বৃদ্ধি পাওয়ায় গাড়ল (উন্নত জাতের ভেড়া) পালনে আগ্রহ বেড়েছে খামারীদের। ভেড়ার একটি উন্নত প্রজাতি এ গাড়ল। এগুলো দেখতে প্রায় ভেড়ার মতো। দেশি ভেড়ার চেয়ে এটি আকারে বড়, মাংসও বেশি হয়। মাংসের চাহিদা মেটাতে দেশেই এখন বাণিজ্যিকভাবে গড়ে উঠেছে গাড়লের খামার। কর্মসংস্থান হয়েছে অনেকের। অনেকে সফলতাও পেয়েছে আবার গাড়ল(ভেড়া) পালন করে ভাগ্য বদল করে স্বাবলম্বী হয়েছে এলাকার অনেক বেকার যুবক।

তবে সরকারী সহযোগীতা ও সহজ শর্তে ঋন পেলে নিজ উদ্যেগে গড়ে উঠবে আরো অনেক গাড়লের খামার এবং মাংসের চাহিদা মিটানোর পাশাপাশি অর্থনীতিতে ব্যাপক অবদান রাখবে বলেও মনে করেন এসব খামারীরা।

খামারীরা জানায়, দিনাজপুরের নবাবগঞ্জে ৮/৯ জন খামারীর প্রায় ৬শ গাড়ল প্রজাতির ভেড়া পালন করছে। তুলনামুলক গৃহপালিত অন্য প্রাণির চেয়ে গাড়লের রোগ বালাই কম হয় এবং দ্রুত মাংস বৃদ্ধি হয়, আবার এর মাংসে চর্বি কম থাকে।

খামারী নবাবগঞ্জে গাড়ল পালন করে স্বাবলম্বী হয়েছে একটি বেসরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অফিস সহকারী নবাবগঞ্জের তর্পনঘাট গ্রামের মোঃ রইচ উদ্দিন। খামারী মোঃ রইচ উদ্দিনের স্বল্প বেতনে ঠিকমত সংসার চলত না। গাড়ল ভেড়া পালনেই তার ভাগ্যের চাকা ঘুরে গেছে। খামারী রইচ উদ্দিন জানান, গাড়ল ভেড়ার মাংস গন্ধ মুক্ত সুস্বাদু। পুষ্টি গুনেও ভাল।

দেশের দক্ষিনবঙ্গে এর মাংসের ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। প্রতি কেজি মাংস ৭ থেকে ৮শ টাকা কেজি দরে বিক্রি হয়। একজন খামারী ২ লক্ষ টাকা বিনিয়োগ করে খরচ বাদে গাড়ল খামার থেকে প্রতি মাসে ২০ থেকে ২৫ হাজার টাকা আয় করতে পারবেন। মাঠে ছেড়ে দিয়ে প্রাকৃতিক খাবার যেমন মাঠের ঘাস, লতাপাতা খাওয়ানোর মধ্য দিয়ে পালন করা যায়। রোগবালাই খুব কম। ফলে গাড়ল পালনে খরচও কম। তিনি বেকার যুবকদের চাকুরীর পিছনে না ছুটে গাড়ল প্রজাতির ভেড়া পালন করে স্বাবলম্বী হওয়ায় আহব্বান জানান।

নবাবগঞ্জ উপজেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডা. মোঃ আসাদুজ্জামান জানান, উপজেলা প্রাণী সম্পদ অফিস থেকে নিয়মিত টিকাসহ সব ধরনের সেবা দেওয়া দিচ্ছি। এখানে ছোট বড় ৮/৯টি গাড়লের খামার রয়েছে। শাহিনুর রহমান সবুজ ও রইচউদিনের খামার বড়। গাড়ল পালনে তেমন কোন খরচ হয় না। অল্প পুঁজিতে বেশি লাভ হওয়ার কারনে অনেকেই এই গাড়ল পালন করছে। প্রাণী সম্পদ বিভাগ থেকে গাড়ল প্রজাতির ভেড়া পালনে চিকিৎসা সেবা, পরামর্শসহ সকল প্রকার সহযোগিতা করছে খামারীদের।

Surfe.be - Banner advertising service




নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

<a href=”https://surfe.be/ext/446180″ target=”_blank”><img src=”https://static.surfe.be/images/banners/en/240x400_1.gif” alt=”Surfe.be – Banner advertising service”></a>

via Imgflip

Surfe.be - Banner advertising service

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি  © All rights reserved © 2011 Gnewsbd24
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazargewsbd451