বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ০২:৪২ পূর্বাহ্ন

নওগাঁয় মামলা করায় স্কুল শিক্ষিকাকে পিটিয়ে পা ভেঙে দিয়েছে প্রতিপক্ষরা

এম এম হারুন আল রশীদ হীরা, নওগাঁ প্রতিনিধি ঃ
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ১৩ অক্টোবর, ২০২১
  • ১৮ বার পঠিত

নওগাঁর মহাদেবপুরে মামলা করায় প্রতিপক্ষরা পিটিয়ে পা ভেঙে দিয়েছে স্কুল শিক্ষিকার। গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় ওই স্কুল শিক্ষিকা রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছেন। এ ঘটনায় ওই স্কুল শিক্ষিকার স্বামী অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক (সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়) নাসির উদ্দীন বাদি হয়ে ৬জনকে আসামি করে গতকাল মঙ্গলবার রাতে (১২ অক্টোবর) মহাদেবপুর থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, উপজেলা কমপ্লেক্সের দক্ষিণ গেটের আত্রাই নদের বাঁধ সংলগ্ন বাসিন্দা নাসির উদ্দিন মাষ্টারের সাথে তার প্রতিবেশি মৃত মুনির উদ্দিনের ছেলে মাহতাব উদ্দিনের দীর্ঘদিন ধরে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছিল। এ নিয়ে প্রতিপক্ষরা তাকে বিভিন্ন সময় হুমকি ধামকি দিলে নাসির উদ্দিন মাষ্টার নওগাঁ এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টে ১০৭ ধারায় একটি মামলা দায়ের করেন।

গত শনিবার (৯ অক্টোবর) দুপুরে কোর্ট থেকে এ ব্যাপারে সমন জারি হয়। সমন হাতে পেয়ে ক্ষিপ্ত হয়ে প্রতিপক্ষরা তাদের উপর হামলা চালায়। তারা নাসির মাষ্টারের বাড়ির লোকজনকে বাড়ির সামনে ডেকে নিয়ে মামলা তুলে নিতে হুমকি দেয়। এক পর্যায়ে প্রতিপক্ষ মাহতাব উদ্দিন ক্ষিপ্ত হযে নাসির মাষ্টারের স্ত্রী পাঞ্জাতুন বেগমকে (৬৫) (অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়) মারপিট করে মোটরসাইকেল তার বাম পায়ের উপর তুলে দিয়ে পিষ্ট করেন। এতে তার বাম পায়ের উরুর উপরের কয়েক জায়গায় ভেঙে গেছে।

এছাড়া প্রতিপক্ষদের লাঠির আঘাতে নাসির মাষ্টারের ছেলে রবিউল আউয়াল বিপ্লুর স্ত্রী মহসিনা বেগম (২৮), নাতনি রুম্মানুল জান্নাত বিপা (১৩), কোলে থাকা নাতনি ছামিয়া জান্নাত (১) মারাত্মক আহত হয়।

স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে দেন। সেখানে পাঞ্জাতুনের অবস্থার অবনতি ঘটলে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। মামলায় আসামীরা ৭৫ হাজার টাকা মূল্যের স্বর্ণালংকার ছিনিয়ে নিয়েছে বলেও উল্লেখ করা হয়।

মহাদেবপুর থানার পরিদর্শক (ওসি) আজম উদ্দিন মাহমুদ জানান, এ ঘটনায় নাসির উদ্দীন মাষ্টার বাদী হয়ে মাহতাব উদ্দিন, তার স্ত্রী মাহফুজা খানম, ছেলে আরাফাত, ছেলের বউ মেহেরুমা খানম, তাদের সহযোগী বটর ও আঙ্গুরকে আসামী করে মঙ্গলবার মহাদেবপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Surfe.be - Banner advertising service




নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

<a href=”https://surfe.be/ext/446180″ target=”_blank”><img src=”https://static.surfe.be/images/banners/en/240x400_1.gif” alt=”Surfe.be – Banner advertising service”></a>

via Imgflip

Surfe.be - Banner advertising service

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি  © All rights reserved © 2011 Gnewsbd24
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazargewsbd451