রবিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ০৬:৩২ অপরাহ্ন

বিরামপুরের ৫নং বিনাইন ইউপিতে সবাই স্বতন্ত্রঃ নেই কোনো নৌকা প্রতীক

মিজানুর রহমান মিজান, বিরামপুর প্রতিনিধি (দিনাজপুর) ঃ
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২৫ নভেম্বর, ২০২১
  • ৮ বার পঠিত

সারাদেশে চলমান ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীক নিয়ে দলীয় প্রার্থী নির্বাচন করলেও দিনাজপুর জেলার বিরামপুর উপজেলায় আসন্ন ২৮ নভেম্বর তৃতীয় দফা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ৫নং বিনাইল ইউনিয়নে দলটি কোনো প্রার্থীকে নৌকা প্রতীকের মনোনয়ন দেয়নি। এতে ওই ইউনিয়নটিতে নৌকা মার্কা ছাড়াই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে।ওই ইউনিয়নে সবাই সবাই স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসাবে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

বিরামপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতাদের দাবী গত নির্বাচনে আগের নির্বাচনে নৌকা প্রতীকের বিরুদ্ধে নির্বাচন করায় এবং স্বচ্ছ কোনো প্রার্থী না থাকা এবার তাঁদের নৌকার মনোনয়ন দেয়া হয়নি।

উপজেলা নির্বাচন কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, এবার ৫নং বিনাইল ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে তিনজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তাঁদের মধ্যে বর্তমান চেয়ারম্যান মো. শহিদুল ইসলাম মন্ডল ঘোড়া মার্কা, সাবেক চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট মো. হামিদুর রহমান চশমা মার্কা নিয়ে নির্বাচন করছেন। তাঁরা দুজনই এবার নৌকা প্রতীক চেয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের কাছে আবেদন করেছিলেন। এছাড়াও ওই ইউনিয়নের নতুন মুখ হিসেবে মো. হুমায়ন কবির বাদশা আনারস মার্কা প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করছেন।

ওই ইউনিয়নের মোট ভোটার সংখ্যা ১৬ হাজার ২৭২ জন। তাঁদের মধ্যে ৮ হাজার ১৮৮ জন পুরুষ এবং ৮ হাজার ৮৪ জন নারী রয়েছেন।

সরেজমিনে জানা যায়, ২০১৬ সালে অনুষ্ঠিত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ৫নং বিনাইল ইউপিতে আওয়ামী লীগ থেকে দলীয় মনোনয়ন দেওয়া হয় মো. আব্দুর রউফ মিন্টুকে। দলের শৃঙ্খলা ভেঙে সেই নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী হয়েছিলেন বর্তমান চেয়ারম্যান মো. শহিদুল ইসলাম মন্ডল ও সাবেক চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট মো. হামিদুর রহমান। এছাড়াও বিএনপি প্রার্থী হিসেবে সাবেক চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম অবুল ধানের শীষ প্রতীকে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেন।

সেই নির্বাচনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী মো. আব্দুর রউফ মিন্টুকে হারিয়ে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী শহিদুল ইসলাম জয়লাভ করেন।

এবার কেনো নৌকা প্রতীক চাননি এমন বিষয়ে জানতে চাইলে ওই ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের সদস্য ও সাবেক নৌকা মার্কার প্রার্থী আব্দুর রউফ মিন্টু বলেন, গতবার নৌকা প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে অংশ নিয়েছিলাম। সেই সময় দলের দেয়া প্রতীকের বিরুদ্ধে দুই জন কাজ করায় আমি হেরে গেছি। এবার প্রার্থিতা চাইলে আবারো সেই অবস্থাই হবে। দলের মধ্যে বিভেদ বাঁড়বে। বেশ কিছু বিষয় নিয়ে আমি এবার নৌকা প্রতীকের জন্য উপজেলা আওয়ামী লীগের কাছে কোনো আবেদন করিনি।

বিরামপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. খায়রুল আলম রাজু বলেন, এবার ওই ইউনিয়ন থেকে দুইজন নৌকা প্রতীকের জন্য উপজেলা আওয়ামী লীগের কাছে আবেদন করেছিলেন। তাঁরা দু’জনেই গতবারে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থীর বিরুদ্ধে কাজ করায় এবার তাঁদের নৌকা প্রতীকের জন্য কেন্দ্রের কাছে সুপারিশ করা সম্ভব হয়নি। একারণে এবার ওই ইউনিয়নে দলীয় কোনো প্রার্থী দেয়া সম্ভব হয়নি।

এদিকে উপজেলায় ৭টি ইউনিয়নের মধ্যে ছয়টি ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর রয়েছে। শুধু মাত্র ৫নং বিনাইন ইউনিয়নে সবাই স্বতন্ত্র প্রার্থী, কোনো নৌকা প্রতীক।

Surfe.be - Banner advertising service




নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

<a href=”https://surfe.be/ext/446180″ target=”_blank”><img src=”https://static.surfe.be/images/banners/en/240x400_1.gif” alt=”Surfe.be – Banner advertising service”></a>

via Imgflip

Surfe.be - Banner advertising service

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি  © All rights reserved © 2011 Gnewsbd24
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazargewsbd451