মঙ্গলবার, ১৬ অগাস্ট ২০২২, ০৭:৪৬ পূর্বাহ্ন

Surfe.be - Banner advertising service

মাগুরায় কচুর লতির আবাদ বৃদ্ধি লাভবান হচ্ছে কৃষকরা

সাইদুর রহমান, বিশেষ প্রতিনিধি মাগুরা ঃ
  • Update Time : বুধবার, ২৭ জুলাই, ২০২২

কচুর লতি চাষে সফল হয়েছেন মাগুরা জেলার চাষিরা। কচুর লতি চাষে তুলনামূলক কম শ্রম ও অধিক লাভ হওয়ায় দিন দিন কচুর লতি চাষে আগ্রহী হয়ে উঠছেন এই জেলার চাষিরা। কচুর লতি চাষে রাসায়নিক সার ও কীটনাশক ব্যবহারের পরিবর্তে ব্যবহৃত হচ্ছে ছাই। আর তাতে এর ফলনও হচ্ছে অনেক বেশি। মাগুরা জেলায় চাষ হওয়া কচুর লতি স্থানীয় চাহিদা মিটিয়ে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় যাচ্ছে।

মাগুরা জেলা কৃষি অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, এই মৌসুমে মাগুরা জেলার ৪ উপজেলায় ১০ হাজার হেক্টর জমিতে বিভিন্ন জাতের সবজি চাষ হয়েছে। আর এসব সবজির মধ্যে কচুর লতি চাষ হয়েছে প্রায় ৫৭৫ হেক্টর জমিতে। মাগুরা জেলার ইছাখাদা গ্রামের কৃষক খাইরুল আলম বলেন, চলতি মৌসুমে দেড় বিঘা জমি বর্গা নিয়ে কচুর লতি চাষ করছেন তিনি। কচুরলতি চাষে তার খরচ হয়েছে আনুমানিক ১৫ হাজার টাকা। আর লাভ হয়েছে এখন পর্যন্ত প্রায় ৪০ হাজার টাকা। তাছাড়াও আরও যে পরিমাণ কচুর মূল রয়েছে, সেখান থেকে ২০-৩০ হাজার টাকার লতি বিক্রি হবে বলে আশা করছেন তিনি।

ঐ এলাকার আরেক কৃষক মকবুল হোসেন জানান, এখানকার উৎপাদিত কচুর লতি খেতে বেশ সুস্বাদু। তাই এখানকার লতির চাহিদা রয়েছে বেশ। আর এর ফলে ভাল দামও পাচ্ছেন চাষিরা। আগে তিনি তার জমিতে ধান চাষ করতেন। পরে কৃষি অফিসারের পরামর্শে কচুর লতি চাষ করেন তিনি। লাভও পেয়েছিলেন বেশ ভাল। আর তখন থেকেই কচুর লতি চাষ করে যাচ্ছি।

মাগুরা জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক জানান, এসব অঞ্চলে ধানের চেয়ে সবজির চাষ দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। এখানকার কৃষক শীতকালীন সবজির পাশাপাশি কম খরচে বেশি লাভের আশায় কচুর লতি চাষে থাকেন।

Surfe.be - Banner advertising service

https://www.facebook.com/gnewsbd24

More News Of This Category
© All rights reserved © 2011 Live Media
কারিগরি সহযোগিতায়: মোঃ শাহরিয়ার হোসাইন
freelancerzone