সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১০:১৩ পূর্বাহ্ন

মানুষের চিন্তায় অতীত-বর্তমান-ভবিষ্যত; কুকুরের চিন্তা বর্তমান

ডেস্ক
  • Update Time : মঙ্গলবার, ৯ আগস্ট, ২০২২

…………………….মোশাররফ হোসেন মুসা

লেখক: গণতন্ত্রায়ন ও গণতান্ত্রিক স্থানীয় সরকার


তাঁর নাম আবু ইউসুফ। তিনি ঈশ্বরদী সরকারি কলেজের লাইব্রেরিয়ান। তিনি হার্টের রোগী। কয়েকবার অপারেশন করিয়েছেন। কথা বলতে গেলে জড়তা আসে। সেজন্য উচ্চস্বরে কথা বলার চেষ্টা করেন। সেদিন লাইব্রেরিতে গিয়েছিলাম ঈশ্বরদী কলেজ প্রতিষ্ঠার ইতিহাস খুঁজতে। বড় লাইব্রেরি, কয়েক হাজার বই। শিক্ষার্থীদের পড়ার জন্য রয়েছে সুন্দর ব্যবস্থা। কোনো শিক্ষার্থী নেই।

লাইব্রেরির এক কোনায় একটি ছেলে শব্দ করে একটি ইংরেজি বই পড়ছে। শুনলাম ওই ছেলেটাই না কি প্রতিদিন লাইব্রেরিতে আসে। শিক্ষার্থীরা কেন লাইব্রেরিতে আসে না- এর উত্তরে আবু ইউসুফের সহজ উত্তর ‘ অতীত-বর্তমান-ভবিষ্যত এই তিন কাল নিয়ে মানুষের জীবন; কিন্ত শুধু বর্তমান নিয়ে কুকুরের জীবন’। তার কথাটি যদি দেশের আঙ্গিকে চিন্তা করা যায় তাহলে দেখতে পাবো, রাজনীতিক-চাকুরিজীবী-ব্যবসায়ী সকলেই বর্তমান নিয়ে ভাবছে। দুর্নীতি, লুটপাট, খাদ্যে ভেজাল সবকিছুই বর্তমানকে ঘিরে।

ভাবটা যেন -‘এখনতো কামাই করি, ভবিষ্যতে কী হবে, সে চিন্তা পরে করা যাবে’। কিন্তু তারা জানেন না, এক জায়গার মাটি উঁচু হওয়া মানে আরেক জায়গার মাটি নিচু হয়ে যাওয়া। পরিণাম ভূমি ধ্বস( উদাহরণ- শ্রীলঙ্কা)।

সম্প্রতি চট্টগ্রাম এলাকায় একটি খবরে প্রকাশ পেয়েছে একজন সাবেক এমপি একটি জীর্ণ ঘরে বিনা চিকিৎসায় প্রায় অনাহারে দিন কাটাচ্ছেন। কিন্তু বর্তমান এমপি’দের জীবনযাপন কেমন, তা ব্যাখা করে বলার দরকার নেই। অভিভাবকরাও তাদের সন্তানদের লেখাপড়া শেখাচ্ছেন পরীক্ষায় ফার্স্ট হওয়ার জন্য। লেখাপড়া শিখে দেশ গড়তে হবে, মানুষের সেবা করতে হবে এগুলো এখন সেকেলে কথাবার্তা। ছাত্র নেতাদের যদি জিজ্ঞেস করা যায়- ভাষা আন্দোলন, গণঅভ্যুথ্বান, ৬ দফা আন্দোলন, মুক্তিযুদ্ধ ইত্যাদি বিষয়ে তার পড়াশোনা আছে কি না, তাহলে উত্তর পাওয়া যাবে- ‘এগুলো অতীতের বিষয়, বক্তৃতা দেয়ার অাগে কিছুটা শিখে নিলেই হবে’।

জনৈক শিক্ষক বলেন- ছাত্ররা জানার জন্য প্রশ্ন করে না, তাই তারাও উত্তর দেয়ার জন্য পড়াশুনা করেন না। তিনি কলেজে যান, হাজিরা দেন, মাস গেলে বেতন তুলেন। ভাবটা যেন- আমার কি দায় পড়েছে? এই দায়সারা ভাব সমাজে সর্বত্র। এবার যদি বিশ্বমন্ডলের দিকে তাকাই তাহলে একই চিত্র দেখতে পাবো। ইউক্রেন কেন ন্যাটো তে যোগ দিতে চায়, রাশিয়া কেন ইউক্রেন দখলে নিতে চায়, আমেরিকা কেন যুদ্ধ চায়, সবই কিন্তু বর্তমানকে ঘিরে। অন্যদিকে বৈশ্বিক তাপমাত্রা বৃদ্ধি পাওয়ায় তারা বড় বড় সেমিনার করে বলছে -‘কার্বন নিঃসরণের হার কমাতে হবে’। উন্নয়নের জন্য প্রতিযোগিতা দরকার, প্রতিযোগিতায় টিকতে হলে বড় বড় শিল্পকারখানা স্থাপন জরুরি। দেশের উন্নয়ন আগে, পরিবেশ রক্ষা পরে। এসবের মুলে রয়েছে- পুঁজিবাদী দর্শন। এই দর্শনের মুল কথা হলো- বর্তমানকে এনজয় করো ও ভোগ করো।

Surfe.be - Banner advertising service

https://www.facebook.com/gnewsbd24

More News Of This Category
<script async src="https://pagead2.googlesyndication.com/pagead/js/adsbygoogle.js?client=ca-pub-3423136311593782"
     crossorigin="anonymous"></script>
© All rights reserved © 2011 Live Media
কারিগরি সহযোগিতায়: মোঃ শাহরিয়ার হোসাইন
freelancerzone