শনিবার, ০১ অক্টোবর ২০২২, ০৭:৫৫ অপরাহ্ন

বরগুনায় ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ

বিশেষ প্রতিনিধি, বরগুনা
  • Update Time : সোমবার, ১৫ আগস্ট, ২০২২

বরগুনায় শোক দিবসের অনুষ্ঠানে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এসময় পুলিশের একটি গাড়ি ভাঙ্চুর করেছে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা।

সোমবার (১৫ আগস্ট) বেলা ১১টার দিকে জেলা শিল্পকলা একাডেমীর সামনে এ ঘটনা ঘটে। ঘণ্টাব্যাপী এ সংঘর্ষের ঘটনায় কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

স্থানীয়রা জানান, সকালে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানিয়ে জেলা আওয়ামী লীগসহ অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা জেলা শিল্পকলা একাডেমির আলোচনা সভায় যোগ দেন।

সভাপতি পদবঞ্চিত জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি সবুজ মোল্লাসহ সমর্থকরা ওই সভায় যান। বেলা ১১ টার দিকে জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি রেজাউল কবির রেজা নেতাকর্মীদের নিয়ে শিল্পকলায় আসলে দুই গ্রুপের সংঘর্ষ শুরু হয়।

এসময় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করলে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা পুলিশের ওপর হামলা করে। এ সময় পুলিশের একটি গাড়ি ভাঙচুর বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা। পরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে লাঠিচার্জ ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা ছত্রভঙ্গ হয়ে যান। পরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে বরগুনা নদী বন্দরের পন্টুনের একটি কক্ষ থেকে কিছু দেশিয় অস্ত্র উদ্ধার করে পুলিশ।

এ বিষয়ে জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি রেজাউল কবির রেজা জানান, বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শিল্পকলায় প্রবেশের সময় ছাদ থেকে তাদের ওপর ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করে অজ্ঞাতরা। তাদের ইট-পাটকেলে পুলিশের একটি গাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

অন্যদিকে সভাপতি পদবঞ্চিত জেলা ছাত্রলীগের সহ সভাপতি সবুজ মোল্লার সঙ্গে কথা বলার চেষ্টা করা হলে তিনি ব্যস্ততা দেখিয়ে এই মুহুর্তে কিছু বলতে পারবেন না বলে জানান।

উল্লেখ্য, দীর্ঘ আট বছর পর গত ১৭ জুলাই বরগুনা শহরের সিরাজ উদ্দীন টাউন হল মিলনায়তনে বরগুনা জেলা ছাত্রলীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এরপর ২৪ জুলাই রাতে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক জেলা ছাত্রলীগের নতুন কমিটির অনুমোদন দেন। এতে জেলা কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ ৩৩ সদস্যের নাম প্রকাশ করা হয়। এরপর থেকেই সদ্য ঘোষিত এ কমিটি প্রত্যাখ্যান করে বরগুনা শহরে পদবঞ্চিতরা প্রতিবাদ জানাতে থাকেন।

সভাপতি পদ বঞ্চিত জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি সবুজ মোল্লার সঙ্গে কথা বলার চেষ্টা করলেও তিনি ব্যস্ততা দেখিয়ে এড়িয়ে যান।

বরগুনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলী আহম্মেদ জানান, ছাত্রলীগেরে গ্রুপিং থেকেই ঘটনার শুরু। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। এ বিষয়ে আইনগত পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

বরগুনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এসএম তারেক রহমান বলেন, শিল্পকলা একাডেমির সামনে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। পুলিশ গিয়ে সকলকে ছত্রভঙ্গ করে দেয়।

Surfe.be - Banner advertising service

https://www.facebook.com/gnewsbd24

More News Of This Category
<script async src="https://pagead2.googlesyndication.com/pagead/js/adsbygoogle.js?client=ca-pub-3423136311593782"
     crossorigin="anonymous"></script>
© All rights reserved © 2011 Live Media
কারিগরি সহযোগিতায়: মোঃ শাহরিয়ার হোসাইন
freelancerzone