মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ০৩:৫৫ পূর্বাহ্ন

তানোরে সরকারী হলরুমে নির্বাচনী সভা

তানোর( রাজশাহী) প্রতিনিধি
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২২

আসন্ন রাজশাহী জেলা পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে  নির্বাচনী আইনের তোয়াক্কা না করে তানোরে সরকারী হলরুমে মতবিনিময় সভা করেন আওয়ামীলীগ মনোনীত কাপ পিরিচ প্রতীকের প্রার্থী রাজশাহী মহানগরের সিনিয়র সহসভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর ইকবাল হোসেন। নির্বাচনী আইন অমান্য করে এমন সভার খবর ছড়িয়ে পড়লে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীরা সুষ্ঠু ভোট নিয়ে চরম শংকা প্রকাশ করেন। এখবর ছড়িয়ে পড়লে এবং হলরুমের সভা নিয়েও চরম বিব্রত স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা। ফলে সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য প্রার্থীর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি তুলেছেন।

জানা গেছে, তফসীল অনুযায়ী,   আগামী ১৭ অক্টোবর রাজশাহী জেলা পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এউপলক্ষে বৃহস্পতিবার সকালের দিকে তানোর উপজেলা আওয়ামীলীগের আয়োজনে ও উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি ২ নম্বর ওয়ার্ড সদস্য প্রার্থী মাইনুল ইসলাম স্বপনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর ইকবাল হোসেন। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন রাজশাহী মহানগর ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা কামাল হোসেন, সম্পাদক ডাবলু সরকার, জেলা সম্পাদক আব্দুল ওয়াদুদ দারা। উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আবুল কালাম আজাদের পরিচালনায় আরো বক্তব্য রাখেন, উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি সরনজাই ইউনিয়ন( ইউপির) চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হক, সাবেক শিবির নেতা সরনজাই ইউপির সদস্য সইবুর রহমান, রফিকুল ইসলাম, পাচন্দর বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক পাচন্দর ইউপির সদস্য আব্দুল গাফফার প্রমুখ।

এছাড়াও জেলা মহিলা লীগের সভাপতি মর্জিনা বেগম ও জেলা যুবলীগের সভাপতি সালেহ বক্তব্য নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়।

সকাল প্রায় ১১ টার দিকে শুরু হয় সভা। বিকেল ৩ টা পার হলেও বক্তব্য চলমান থাকায় চরম ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পংকজ চন্দ্র দেবনাথের কাছে জানতে চাওয়া হয় সরকারী হলরুম ও  এসি ব্যবহার করতে পারেন কিনা জানতে চাইলে তিনি জানান, আমাকে মতবিনিময় সভার কথা বলেন। নির্বাচনী সভা করার সুযোগ নাই, ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার সাথে কথা বলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এবিষয়ে জানতে জেলা নির্বাচন অফিসার জেলা পরিষদ নির্বাচনের সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা আবুল হোসের বলেন, আচরন বিধি পড়া নাই, তবে সরকারী হলরুমে করা যায় না। পুনরায় তিনি জানান রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়রকে শোকজ করা হয়েছে বলে নানান ধরনের কথা বলার এক পর্যায়ে আচরন বিধি পড়ে জানান সরকারী হল রুমে সভা করতে পারে।

রিটার্নিং অফিসার জেলা প্রশাসক আব্দুল জলিল জানান, সরকারী হলরুমে নির্বাচনী সভা করার কোন সুযোগ নেই। বিষয়টি গুরুত্বসহকারে দেখা হবে।

Surfe.be - Banner advertising service

https://www.facebook.com/gnewsbd24

More News Of This Category
<script async src="https://pagead2.googlesyndication.com/pagead/js/adsbygoogle.js?client=ca-pub-3423136311593782"
     crossorigin="anonymous"></script>
© All rights reserved © 2011 Live Media
কারিগরি সহযোগিতায়: মোঃ শাহরিয়ার হোসাইন
freelancerzone