মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ০৩:১৪ পূর্বাহ্ন

কক্সবাজারে ৩০৫টি পূজা মন্ডপে দুর্গাপূজা শুরু

মোঃআমান উল্লাহ, কক্সবাজার।
  • Update Time : শনিবার, ১ অক্টোবর, ২০২২

সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গোৎসব ষষ্ঠীপূজার মাধ্যমে দুর্গাপূজা শুরু।কক্সবাজার জেলা পূজা উদযাপন পরিষদ জানিয়েছে, পুরো জেলায় ৩০৫ টি মণ্ডপে দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত  হবে। মণ্ডপগুলোতে বাহারি রঙের আলোকসজ্জাসহ চলছে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি।গতকাল শনিবার ষষ্ঠী তিথিতে দেবী দুর্গার বোধন, আমন্ত্রণ ও অধিবাসের মধ্য দিয়ে শুরু হবে দুর্গোৎসবের আনুষ্ঠানিকতা।২ অক্টোবর সপ্তমী, ৩ অক্টোবর মহাষ্টমী ও কুমারী পূজা, ৪ অক্টোবর মহানবমী এবং ৫ অক্টোবর বিজয় দশমীতে প্রতিমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে শেষ হবে দুর্গোৎসব।দশমীতে শহরের বিভিন্ন মন্দির থেকে বের করা হবে বিজয়া শোভাযাত্রা। এবছর জেলার নয়টি উপজেলা ৩০৫ টি মণ্ডপে শারদীয় দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হবে।তার মধ্যে সবচেয়ে বেশি পূজা অনুষ্টিত হবে চকরিয়া উপজেলায়।চকরিয়া উপজেলায় (পৌরসভাসহ) ৪৮টিতে প্রতিমা পূজা ও ৪৩টিতে ঘট পূজা। কক্সবাজার সদর উপজেলায় ১৭টিতে প্রতিমা পূজা ও ১১টি ঘট পূজা, ঈদগাঁও উপজেলায় ১৭টি প্রতিমা পূজা ও ৯টিতে ঘট পূজা,কক্সবাজার পৌরসভায় ১১টিতে প্রতিমা পূজা ও ১০টিতে ঘট পূজা, রামু উপজেলায় ২২টিতে প্রতিমা পূজা ও ১০টিতে ঘট পূজা, , পেকুয়া উপজেলায় ৫টিতে প্রতিমা পূজা ও ৪টিতে ঘট পূজা, কুতুবদিয়া উপজেলায় ১৩টিতে প্রতিমা পূজা ও ৩২টিতে ঘট পূজা, মহেশখালীউপজেলায় (পৌরসভাসহ) ১টিতে প্রতিমা পূজা ও ৩০টিতে ঘট পূজা, উখিয়া উপজেলায় ৭টিতে প্রতিমা পূজা ও ৮টিতে ঘট পূজা, টেকনাফ উপজেলায় ৬টিতে প্রতিমা পূজা ও উখিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ১টিতে প্রতিমা পূজা অনুষ্ঠিত হবে। গত শুক্রবার সকাল থেকে একাধিক মন্দিরে গিয়ে দেখা যায়, প্রতিমা শিল্পীরা দিনরাত দুর্গা, সরস্বতী, লক্ষ্মী, গণেশ, কার্তিক, অসুর, সিংহসহ অন্য প্রতিমা সাজাতে ব্যস্ত সময় পার করছেন।চলছে রং আর তুলি দিয়ে প্রতিমা সাজানোর কাজ। এ ছাড়াও প্রতিমা তৈরির পাশাপাশি অন্যান্য মন্দিরের সাজসজ্জায় চলছে বিশেষ প্রস্তুতি।জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক বেন্টু দাশ এ বিষয়ে জানান, শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষে এরইমধ্যে একাধিক সভা করা হয়েছে। পূজা শান্তিপূর্ণভাবে সম্পাদনের জন্য আমাদের প্রশাসনের সর্বস্তরের সহযোগিতা প্রয়োজন। আমরা ইতিমধ্যে জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসনের সঙ্গে কথা বলেছি। তারা আমাদের সার্বিক নিরাপত্তা ও সব সুযোগ-সুবিধা দেওয়ার কথা জানিয়েছেন।আসন্ন দুর্গাপূজাকে ঘিরে কঠোর নিরাপত্তা দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন জেলা ও পুলিশ প্রশাসন।নিরাপত্তার বিষয়ে পুলিশ সুপার মহাফুজুর রহমান জানান,শান্তিপূর্ণ ও সুশৃঙ্খলভাবে পূজা করার জন্য পর্যাপ্ত পরিমাণে পুলিশ ও আনসারসহ নিরাপত্তা প্রদান করা হবে।

Surfe.be - Banner advertising service

https://www.facebook.com/gnewsbd24

More News Of This Category
<script async src="https://pagead2.googlesyndication.com/pagead/js/adsbygoogle.js?client=ca-pub-3423136311593782"
     crossorigin="anonymous"></script>
© All rights reserved © 2011 Live Media
কারিগরি সহযোগিতায়: মোঃ শাহরিয়ার হোসাইন
freelancerzone