মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ০৪:০০ পূর্বাহ্ন

বরগুনা জেলা পরিষদ সদস্য নির্বাচন-২ প্রার্থীর পাল্টাপাল্টি সংবাদ সম্মেলন

মোঃ কাশেম রাসেল, পাথরঘাটা প্রতিনিধি
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ৬ অক্টোবর, ২০২২

পাথরঘাটা পৌরসভার ২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর রোকনুজ্জামান রুকু’র কার্যালয়ে অর্ধশত মুক্তিযোদ্ধা অংশগ্রহণে সংবাদ সম্মেলন করেন মুক্তিযোদ্ধা সংসদের ডেপুটি কমান্ডার পাথরঘাটা ও জেলা পরিষদের সাধারণ-৫ ওয়ার্ডের সদস্য প্রার্থী এম এ খালেক। একইদিন দুপুর একটায় পাথরঘাটা কলেজ প্রাঙ্গণে পাল্টা সংবাদ সম্মেলন করেন, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদের সাধারণ-৫ সদস্য প্রার্থী মোঃ এনামুল হোসাইন।

সংবাদ সম্মেলনে বীর মুক্তিযোদ্ধা এমএ খালেক অভিযোগ করে বলেন, আসন্ন বরগুনা জেলা পরিষদ নির্বাচনে আমি সাধারণ আসন-৫ নং ওয়ার্ডের সদস্য পদে টিউবয়েল প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছি। তবে অত্যন্ত দুঃখের সাথে বলতে হয়, আমাদের বরগুনা ২ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য শওকত হাসান রহমান রিমন আমার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর পক্ষ নিয়ে কয়েকদিন পূর্বে পাথরঘাটা পৌরসভার ৬ নং ওয়ার্ড প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর মালিকানাধীন কে.বি বরফ কলে জেলা পরিষদের ভোটারদেরকে ডেকে নির্বাচনের সভা করেন এবং ভোটারদেরকে আমার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীকে ভোট দিতে চাপ প্রয়োগ করেন। উপস্থিত ৯০ জন ভোটারকে ৩০ হাজার টাকা করে মোট ২৭ লক্ষ টাক প্রদান করেন। ওই সময় মাননীয় সংসদ সদস্য রিমন সাহেবের উপস্থিতিতে অর্থ বিতরণ করা হয় বলে অভিযোগ করেন তিনি।

তিনি আরো বলেন, একজন সংসদ সদস্য এভাবে একজন প্রার্থীর হয়ে কাজ করতে পারেন না, এটা নৈতিকতার চরম অবক্ষয়।

এমপি মহোদয়ের এই বিতর্কিত ভূমিকার জন্য সুষ্ঠু নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠানে পরিবেশ সৃষ্টি বাধাগ্রস্ত হচ্ছে বলে মনে করেন বীর মুক্তিযুদ্ধা খালেকসহ সকল মুক্তিযোদ্ধারা।

সম্মেলনে শহীদুল আলম তালুকদার বলেন, এমপি সাহেবের বাবা বরগুনা জেলার একজন পিস কমিটির চেয়ারম্যান ও এমটি সাহেব রাজাকারের ছেলে। তার পিএস চলমান মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে হতে পরোয়ানা প্রাপ্ত আসামি। সে কারনে তিনি মুক্তিযোদ্ধাদের অবমূল্যায়ন করেন এবং রাজাকার ও ভিন্ন দলের লোকজনকে পুনর্বাসন করেন যা কোন ভাবেই গ্রহনযোগ্য নয়।

পাল্টা সংবাদ সম্মেলনে মোঃ এনামুল হোসাইন বলেন, জেলা পরিষদ নির্বাচনে ৫নং ওয়ার্ড পাথরঘাটা উপজেলার সদস্য পদে তালা প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছি
২৫/০৯/২০২২ তারিখ জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা আমাকে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আমাকে নির্বাচিত ঘোষণা করেন। আমার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা জনাব এম এ খালেক সাহেবের প্রার্থিতা জেলা রিটানিং কর্মকর্তা ১৮/০৯/২০২২ বাতিল ঘোষণা করায় মহামান্য হাইকোর্টের রায় অনুযায়ী পুনরায় গত ০৪/১০/২০২২ প্রতিক বরাদ্দ দেন। পরবর্তী সময়ে আমি নির্বাচনের কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করলে আমার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী সম্পূর্ণ উদ্দেশ্য প্রনোদিত ভাবে আমাকে ও মাননীয় সংসদ সদস্য মহোদয়ের বিরুদ্ধে নানা ধরনের মিথ্যা অসত্য ও মানহানিকর বিষয় নিয়ে এবং এই নির্বাচনকে প্রভাবিত করার জন্য বেআইনি সংবাদ সম্মেলন করে। আমার প্রতিপক্ষ প্রার্থী জনাব এম এ খালেক বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ও অন্যান্য সহযোগী সংগঠনের কোন পদ ধারন করেননি। তারা জাতীয় পার্টি করেছেন বলেও এনামুল অভিযোগ করেন।

Surfe.be - Banner advertising service

https://www.facebook.com/gnewsbd24

More News Of This Category
<script async src="https://pagead2.googlesyndication.com/pagead/js/adsbygoogle.js?client=ca-pub-3423136311593782"
     crossorigin="anonymous"></script>
© All rights reserved © 2011 Live Media
কারিগরি সহযোগিতায়: মোঃ শাহরিয়ার হোসাইন
freelancerzone