বৃহস্পতিবার, ০৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০১:৫০ পূর্বাহ্ন

মেক্সিকোকে হারিয়ে শেষ ষোলোর আশা বাঁচিয়ে রাখলো আর্জেন্টিনা

ক্রীড়া ডেস্ক ঃ
  • Update Time : রবিবার, ২৭ নভেম্বর, ২০২২

মেক্সিকোকে হারিয়ে কাতার বিশ^কাপের শেষ ষোলোতে খেলার আশা বাঁচিয়ে রাখলো দু’বারের চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা।

আজ গ্রুপ-সি’তে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে আর্জেন্টিনা ২-০ গোলে হারিয়েছে মেক্সিকোকে। আর্জেন্টিনার পক্ষে দু’টি গোল করেন লিওনেল মেসি ও এনজো ফার্নান্দেজ।

এই জয়ে ২ ম্যাচে ৩ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের দ্বিতীয়স্থানে উঠলো আর্জেন্টিনা। সমানসংখ্যক ম্যাচে ৪ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের শীর্ষে মেক্সিকো। সৌদি আরব ৩ ও মেক্সিকোর পয়েন্ট ১। একটি করে ম্যাচ এখনো বাকি থাকায় গ্রুপ থেকে চার দলেরই শেষ ষোলোতে যাবার সুযোগ থাকছে।

নিজেদের প্রথম ম্যাচে সৌদি আরবের কাছে ২-১ গোলে হেরে চাপের মুখে পড়ে যায় আর্জেন্টিনা। শেষ ষোলোর আশা বাঁচিয়ে রাখতে মেক্সিকোর বিপক্ষে জয়ের লক্ষ্য নিয়ে খেলতে নামে মেসি-ডি মারিয়ারা।

লুসাইলের লুসাইল স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচের শুরু থেকেই বল দখলে রাখার চেষ্টা করে আর্জেন্টিনা। বল দখলে রাখলেও আক্রমন শানাতে পারছিলো না তারা। দশম মিনিটে ম্যাচের প্রথম আক্রমন করে মেক্সিকো। মধ্যমাঠ থেকে বল নিয়ে আর্জেন্টিনার বক্সের ভেতর ক্রস করেন মিডফিল্ডার লুইস শাভেজ। কিন্তু বলের কাছে মেক্সিকোর কোন খেলোয়াড়। পৌঁছাতে না পারায় আক্রমনটি ব্যর্থ হয়।

৩৩ মিনিটে ডান-প্রান্ত দিয়ে মেসির ফ্রি-কিক সামান্য বেঁকে মেক্সিকোর গোলমুখের দিকেই ছিলো। কিন্তু সহজেই মেক্সিকোর গোলরক্ষক গুইলারমো ওচোয়া বলটি গ্রিবে নেন।এরপর ৪০ মিনিটে প্রথম গোলের ভালো সুযোগ পায় আর্জেন্টিনা। কর্নার থেকে বল পেয়ে মেক্সিকোর বক্সে ক্রস করেন স্ট্রাইকার অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া। উড়ে আসা বলে হেড নিয়ে বাইরে মারেন আক্রমনভাগের আরেক স্ট্রাইকার লটারো মার্টিনেজ।
তবে মেক্সিকোর পাল্টা আক্রমনে ৪৫ মিনিটে গোলরক্ষকের অসাধারন দক্ষতায় গোল হজম থেকে বেঁচে যায় আর্জেন্টিনা। স্ট্রাইকার এ্যালেক্সিস ভেগার ফ্রি কিকের দূরপাল্লার শট বাঁ-দিকে ঝাপিয়ে পড়ে মেক্সিকোর নিশ্চিত গোল আটকে দেন আর্জেন্টিনার গোলরক্ষক এমিলিয়ানো মার্টিনেজ।

আর্জেন্টিনার ধারহীন ফুটবল ও মেক্সিকোর আক্রমনের চেষ্টায় গোলশূন্যভাবে শেষ হয় ম্যাচের প্রথমার্ধ। তবে ৬৭ শতাংশ বল দখলে রেখে মাত্র ১টি আক্রমন রচনা করতে পারে আর্জেন্টিনা। ৩৩ শতাংশ বল দখলে নিয়ে ৩টি আক্রমনের মধ্যে ১টি শট গোলমুখে রেখেছিলো মেক্সিকো।

বিরতির পর মেক্সিকোর ডি-বক্সের বাইরে ফ্রি-কিক পায় আর্জেন্টিনা। ২২ গজ দূর থেকে নেয়া ফ্রি-কিক মেক্সিকোর গোলবারের উপর দিয়ে মারেন মেসি।

প্রথমার্ধের মত বল দখলে নিয়ে আক্রমনের চেষ্টায় থাকে আর্জেন্টিনা। মেক্সিকোর রক্ষণদূর্গ ভাঙ্গতেই ঘাম ঝড়ে তাদের। এরই মধ্যে ডান-প্রান্ত দিয়ে আক্রমনের ছক কষে তারা। সেটি কাজেও লেগে যায়। মাঝমাঠ থেকে মেক্সিকোর ডি-বক্সের বাইরে থাকা মেসিকে বল দেন ডি মারিয়া। বল পেয়ে সময়ক্ষেপন না করে বাঁ-পায়ের মাটি কামড়ানোর শটে ডান-দিকের গোলবার দিয়ে বলকে মেক্সিকোর জালে জড়ান মেসি(১-০)। আর্জেন্টিনার হয়ে বিশ^কাপে মেসির অষ্টম গোলে র১-০ গোলে এগিয়ে যায় আর্জেন্টিনা।

এরপরই ম্যাচে সমতা ফেরাতে মরিয়া হয়ে উঠে মেক্সিকো। তবে বার বার বল দখলে নিলেও আর্জেন্টিনার ডিফেন্সের দৃঢ়তায় আক্রমন করতে পারছিলো না তারা।

এরই মধ্যে উল্টো ৮৭ মিনিটে আর্জেন্টিনাকে ডাবল লিড এনে দেন মিডফিল্ডার এনজো ফার্নান্দেজ। কর্নার থেকে বল পেয়ে মেক্সিকোর বক্সের বাইরে থাকা ফার্নান্দেজকে বল দেন মেসি। বল নিয়ে বক্সের ভেতর থেকেই কোনাকুনি শটে বলকে মেক্সিকোর জালে পাঠান ফার্নান্দেজ(২-০)। দেশের হয়ে চতুর্থ ম্যাচ খেলতে নেমে প্রথম গোল করলেন ফার্নান্দেজ। শেষ পর্যন্ত ঐ স্কোরলাইনে স্বস্তির জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে আর্জেন্টিনা।

আগামী ৩০ নভেম্বর গ্রুপ পর্বে নিজেদের শেষ ম্যাচে দোহার ৯৭৪ স্টেডিয়ামে পোল্যান্ডের মুখোমুখি হবে আর্জেন্টিনা। একই দিন লুসাইলের লুসাইল স্টেডিয়ামে সৌদি আরবের বিপক্ষে খেলবে মেক্সিকো।

Surfe.be - Banner advertising service

https://www.facebook.com/gnewsbd24

More News Of This Category
© All rights reserved © 2011 Live Media
কারিগরি সহযোগিতায়: The It Zone
freelancerzone