বৃহস্পতিবার, ০৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০২:৪৬ পূর্বাহ্ন

স্টার্টআপ ইকোসিস্টেমকে শক্তিশালী করতে আইডিয়া প্রকল্প ও মাইক্রোসফটের এলওআই স্বাক্ষর

জি-নিউজবিডি২৪ডেস্ক ঃ
  • Update Time : রবিবার, ১৮ ডিসেম্বর, ২০২২

ডিপ টেকনোলজি স্টার্টআপদের সহায়তায় এবং দেশীয় উদ্ভাবনকে ত্বরাণ্বিত করতে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের অধীনে বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের ইনোভেশন ডিজাইন অ্যান্ড এন্ট্রেপ্রেনিউরশিপ এন্ট্রেপ্রেনিউরশিপ অ্যাকাডেমি (আইডিইএ) প্রকল্পের সাথে লেটার অব ইন্টেন্ট (এলওআই) স্বাক্ষর করেছে মাইক্রোসফট।

‘মাইক্রসফট ফর স্টার্টআপ ফাউন্ডারস হাব’ প্রোগ্রামের সুবিধা নেয়ার সুযোগ প্রদান করে স্থানীয় স্টার্টআপগুলোকে সহায়তা করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ মাইক্রোসফট। ‘ভিজ্যুয়াল স্টুডিও’, ‘গিটহাব’, এম৩৬৫, ‘পাওয়ার প্ল্যাটফর্ম’ ও ‘ডায়নামিক ৩৬৫’-সহ মাইক্রোসফটের বিভিন্ন টুলস এবং প্ল্যাটফর্মের সকল সুবিধা প্রদান করবে এ প্ল্যাটফর্ম। স্টার্টআপ উদ্যোক্তাদের লক্ষ্য অর্জনে এবং তাদের আইডিয়া বাস্তবায়নেও সক্ষম করে তুলতে ভূমিকা রাখবে এ প্ল্যাটফর্ম।

যোগ্য স্টার্টআপগুলো ওয়ান টু ওয়ান টেকনিক্যাল অ্যাডভাইজরি সেশন এবং ২৪/৭ প্রযুক্তিগত সহায়তাসহ বিভিন্ন দিক-নির্দেশনাগত সুবিধা পাবেন। যা তাদের সকল প্রতিবন্ধকতা কাটিয়ে ব্যবসায়িক কার্যক্রমকে এগিয়ে নিয়ে যেতে সহায়তা করবে। এবং মাইক্রোসফট মেন্টর নেটওয়ার্ক থেকে তারা বিশেষায়িত মেন্টরশিপ-এর সুবিধা গ্রহণ করতে পারবেন। এছাড়াও, টেইলর্ড লার্নিং পাথস, কন্টেন্ট এবং ইভেন্টের মাধ্যমে উদ্যোক্তারা তাদের স্টার্টআপ যাত্রার পরবর্তী ধাপে উন্নীত হওয়ার সুযোগ লাভ করবেন।

অনুষ্ঠানে আইডিয়ার প্রকল্প পরিচালক যুগ্মসচিব মো. আলতাফ হোসেন বলেন, “বর্তমানে, বাংলাদেশে প্রায় ২৫শ’ স্টার্টআপ এবং ইম্প্যাক্ট এন্টাইরপ্রাইজ রয়েছে। প্রতি বছর এই তালিকায় যুক্ত হচ্ছে ২শ’রও বেশি স্টার্টআপ। এক্ষেত্রে, এ অংশীদারিত্ব বাংলাদেশি স্টার্টআপ ইকোসিস্টেমকে আরও শক্তিশালী করে তোলার ক্ষেত্রে একটি সময়োপযোগী উদ্যোগ। আমাদের দেশের স্টার্টআপগুলোকে প্রয়োজনীয় প্রযুক্তি এবং টুল দিয়ে সহায়তা করে দেশীয় উদ্ভাবনকে উৎসাহিত করছে মাইক্রোসফট। মাইক্রোসফটের মতো বিশ্বব্যাপী স্বীকৃত অংশীদারের সমর্থন পেয়ে আমরা অত্যন্ত আনন্দিত।

দেশের স্টার্টআপ ইকোসিস্টেমর মাধ্যমে ১৫ লাখেরও বেশি কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরি হয়েছে, যা দেশের জিডিপি’তে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখছে। স্টার্টআপগুলোর বিভিন্ন সল্যুশনের মাধ্যমে উপকৃত হচ্ছে সাড়ে ৭ লাখেরও বেশি ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোগ। এতে করে, দেশব্যাপী উদ্যোক্তারা ব্যাবসা করার ক্ষেত্রে নানান সুবিধা উপভোগ করতে পারছেন।

মাইক্রোসফটের বাংলাদেশ, ভুটান ও নেপালের কান্ট্রি ম্যানেজিং ডিরেক্টর ইউসুপ ফারুক বলেন, “বাংলাদেশের স্টার্টআপ ইকোসিস্টেমের ‘সেন্ট্রাল হাব’ আইডিয়া’র সাথে কাজ করতে আমরা অত্যন্ত আগ্রহী। এই অংশীদারিত্বের মাধ্যমে আমরা উদ্যোক্তাদের গড়ে তোলার ক্ষেত্রে গতানুগতিক বাধাগুলো দূর করে তাদেরকে ক্ষমতায়ন এবং সামাজিক অবস্থান নির্বিশেষে উদ্ভাবন ও প্রবৃদ্ধিতে সহায়তা করতে চাই।

‘মাইক্রোসফট ফর স্টার্টআপ ফাউন্ডারস হাব’ প্ল্যাটফর্মটি সকল উদ্যোগের জন্য বিশেষায়িত প্ল্যাটফর্ম। এ প্ল্যাটফর্ম পারসোনালাইজড টেকনিক্যাল টুল ও বিজনেস রিসোর্সের মাধ্যমে স্টার্টআপ উদ্যোগগুলোকে নতুন সব মাইলফলক অর্জনে ভূমিকা রাখবে। যেকোনো সময় উদ্যোক্তারা এ প্ল্যাটফর্ম ব্যাবহার করতে পারবেন এবং বিনামূল্যেই তাদের পরিকল্পনাগুলোকে বাস্তবে রূপান্তর করতে প্রয়োজনীয় প্রযুক্তিগত সুবিধা পাবেন।

Surfe.be - Banner advertising service

https://www.facebook.com/gnewsbd24

More News Of This Category
© All rights reserved © 2011 Live Media
কারিগরি সহযোগিতায়: The It Zone
freelancerzone