সোমবার, ১৭ মে ২০২১, ১০:১৭ পূর্বাহ্ন

ফুলবাড়ী থানায় প্রতিপক্ষের ২টি মিথ্যা মামলা দায়ের

মোঃ আফজাল হোসেন, ফুলবাড়ী প্রতিনিধি (দিনাজপুর ) :
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ৪ আগস্ট, ২০২০
  • ৯৭ বার পঠিত

ফুলবাড়ী উপজেলার কাজিহাল ইউপি’র পল্লীতে পূর্বের শত্রুতার জের ধরে প্রতিপক্ষকে হয়রানি করার জন্য ফুলবাড়ী থানায় পৃথক ২টি মামলা দায়ের ১টি থানা কর্তৃক চার্জশীট দাখিল।

ফুলবাড়ী উপজেলার কাজিহাল ইউপির মিরপুর গ্রামের মৃত জালাল উদ্দিন এর পুত্র মোঃ তোফায়েল হোসেন চৌধুরী (৫০) এর অভিযোগে জানা যায়, কাজিহাল ইউপি’র মিরপুর গ্রামে মৃত সিরাজুল হক চৌধুরীর পুত্র মোঃ সুবক্তগীন চৌধুরীর ফুলবাড়ী থানায় গত ১৬/০৭/২০২০ ইং তারিখে দাখিলকৃত মামলার ইজাহারে উল্লেখ করেন নিরট্টী মৌজায় ১০ একর ৭ শতক জমিতে লাগানো ধানের বীজগুলি নষ্টের চেষ্টা করি এবং জোর পূর্বক জমি দখল করতে যাই। উল্লেখ্য যে, ঐ দিন রাত্রি ২টায় হাতে লাঠিসোঠা, হাসুয়া এবং ছোরা নিয়ে দলবদ্ধ হয়ে জমিতে অনধিকার প্রবেশ দেখানো হয়েছে। সেদিন এ ধরনের কোন ঘটনাই ঘটেনি। মামলার বাদী সুবক্তগীন চৌধুরী নিরট্টি মৌজার ১০ একর ৭ শতক জমি তার কোন দখলে নেই।

দীর্ঘদিন ধরে এসব জমি তোফায়েল হোসেন চৌধুরী গংরা ভোগ দখল করে আসছে। কিন্তু মামলার বাদী সুবক্তগীন চৌধুরী অযথা মিরপুর গ্রামের নিরীহ ৯ জন ব্যক্তিকে আসামি করে ধানের চারা বিনষ্ট ও জমি দখলের চেষ্টার ইস্যু তৈরি করে একটি মহলের ইন্দনে মামলা দায়ের করেন। যাহার মামলা নং- ১২, তারিখ- ১৬/০৭/২০২০ ইং। এই মামলায় মোঃ তোফায়েল হোসেন চৌধুরীকে ১নং আসামি করা হয়েছে।

মামলার বাদি সুবক্তগীন চৌধুরী ভারতের নাগরিক ছিল। তার বাবা সিরাজুল হক চৌধুরী ভারত থেকে বাংলাদেশে চলে আসার পর মৃত্যুবরণ করেন। সিরাজুল হক চৌধুরীর পুত্র সুবক্তগীন চৌধুরী তার পুত্র হয় কিনা এই নিয়ে সন্দেহ রয়েছে। বাংলাদেশে আসার পর সুবক্তগীণ চৌধুরী কি করে এদেশের নাগরিক হলো এ নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। উল্লেখ্য যে, সুবক্তগীন চৌধুরী গত ১৬/০১/২০২০ ইং তারিখে ফুলবাড়ী থানায় বাদি হয়ে ১০ লক্ষ টাকা চুরির ঘটনায় ৭ জনকে আসামি করে আরো একটি মামলা দায়ের করেন। যাহার মামলা নং ১৪, তারিখ- ১৭/০৩/২০২০ ইং।

মামলার বাদী সুবক্তগীণ চৌধুরী মামলায় উল্লেখ করেন গত ১৬/০১/২০২০ ইং তারিখে বিকেল ৪টায় ফুলবাড়ী সাব-রেজিষ্টার অফিসে জমি রেজিষ্ট্রি করতে এলে উল্লেখ্য ব্যক্তিরা তাকে জমি রেজিষ্ট্রী দিতে বাঁধা নিষেধ করেন ও মারপিট করার হুমকি দেন। মামলার এজাহারে উল্লেখ করেন ২নং আসামি মোঃ তোফায়েল হোসেন চৌধুরী তার টাকার ব্যাগ নিয়ে চলে যান। সেদিন সেখানে শত শত মানুষ ছিল। রেজিষ্ট্রি অফিসে এ ধরনের কোন ঘটনাই ঘটেনি। সুবক্তগীণ চৌধুরী উদ্দেশ্যমূলকভাবে ২টি মামলায় তাদেরকে অর্থনৈতিকভাবে হয়রানি করার জন্য আইন প্রয়োগকারী সংস্থার আশ্রয় নিয়ে এই মিথ্যা মামলা দায়ের করেন।

গত ১৭/০১/২০২০ ইং তারিখে ফুলবাড়ী থানায় দায়েরকৃত মামলাটি পুলিশ সঠিক তদন্ত না করে তড়িঘড়ি করে তোফায়েল হোসেন সহ ৭ জনের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশীট দাখিল করেন। ফুলবাড়ী থানায় সুবক্তগীণ চৌধুরীর দায়েরকৃত ২টি মামলা সাজানো। এদিকে মোঃ তোফায়েল হোসেন চৌধুরী জানান, দীর্ঘদিন ধরে প্রতিপক্ষদের সাথে জমি জমার বিরোধ চলছিল।

এ কারণে আমার প্রতিপক্ষরা আমার লোকজনকে হয়রানি করার জন্য থানার আশ্রয় নিয়ে একের পর এক মামলা করছে। আমি এই দায়েরকৃত ২টি মামলার সঠিক তদন্ত চাই। এ ব্যাপারে তোফায়েল হোসেন চৌধুরী পুলিশ প্রশাসনের উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

এ জাতীয় আরো খবর..

cover3.jpg”><img src=”https://www.bssnews.net/wp-content/uploads/2020/01/Mujib-100-1.jpg”>

via Imgflip

 

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি  © All rights reserved © 2011 Gnewsbd24
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazargewsbd451