সোমবার, ১৭ মে ২০২১, ০৯:১৯ পূর্বাহ্ন

মুসলিম রিসার্চ সেন্টারের যাত্রা শুরু

জি-নিউজবিডি২৪ ডেস্ক :
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ১৬ আগস্ট, ২০২০
  • ১০০ বার পঠিত

ইসলাম ধর্মের বিষয়ে উন্নতর গবেষনা এবং ইসলাম শিক্ষার বিস্তার ও মানব সেবার লক্ষ্য নিয়ে যাত্রা শুরু করলো মুসলিম রিসার্চ সেন্টার (এমআরসি)। বিভিন্ন ধরনের আয়োজন ছাড়াও আন্তর্জাতিক মানের ওয়েবসাইট www.muslimresearchcentre.com ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার করে মানুষকে ইসলামের প্রয়োজনীয় তথ্যগুলো সরবরাহ করছে প্রতিষ্ঠানটি। মূলত কুরআন ও হাদিসের উপর উন্নতর গবেষনা, ইসলাম ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের উন্নয়ন ও মহামারিতে বিপদগ্রস্থ্য মানুষের পাশে দাঁড়ানোর লক্ষ্য নিয়ে কাজ শুরু করেছে এই প্রতিষ্ঠান। বাংলাদেশে মসজিদ, মাদ্রাসা ও এতিমখানার উন্নয়নেও ভূমিকা রাখবে এই সেন্টার।

মুসলিম রিসার্চ সেন্টারের প্রতিষ্ঠাতা মুহাম্মাদ রশিদ আল মাজিদ খান সিদ্দীকী মামুন জানিয়েছেন, ইসলাম শান্তির ধর্ম। সমাজ এবং ব্যাক্তি জীবনে ইসলামের সঠিক চর্চা করতে পারলে অপরাধ কমে যাবে, মানুষের প্রতি মানুষের সহমর্মিতা বাড়বে এবং পৃথিবীকে আরো সুন্দর হিসেবে গড়ে তোলা সম্ভব হবে। একটি মুসলিম সেন্টার থেকে যেন মানুষ দৈনন্দিন জীবনে ইসলামের চর্চা সম্পর্কিত প্রশ্নগুলোর গবেষণালব্ধ উত্তর পেতে পারেন সেটার চেষ্টা করছি আমরা। এছাড়াও বিপদগ্রস্থদের পাশে দাঁড়ানো এবং অন্য ধর্ম অবলম্বনকারীদের কাছে ইসলামের বাণী ছড়িয়ে দেয়া আমাদের অন্যতম লক্ষ্য।

ওয়েবসাইটের www.muslimresearchcentre.com/dua -এ ই লিংকের মাধ্যমে সহজেই সবাই পড়তে জানতে পারবেন দৈনন্দিনের প্রয়োজনীয় দোয়াসমহ। এছাড়াও প্রতিষ্ঠানটির রিসার্চারগণ প্রতিনিয়ত লিখে যাচ্ছেন সমসাময়িক ইস্যুর উপর জরুরী মাসায়েল। যা পাথক ঘড়ে বসেই ওয়েবসাইটের ব্লগ সেকশনে – www.muslimresearchcentre.com/blog পেয়ে যাবে।

এছাড়াও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মুসলিম রিসার্চ সেন্টারের পেজে, কুরআনের বাছাইকৃত আয়াত সহজ অর্থে প্রচার করে যাচ্ছে মুসলিম রিসার্চ সেন্টার (এমআরসি)। একই সঙ্গে নামায, রোজা, হজ, যাকাত, কুরবানী এবং নবীর (সাঃ) সুন্নত এর মতো বিষয়গুলোতে মানুষের করণীয় সর্ম্পকেও কোরআন ও হাদীসের আলোকে ব্যাখা প্রচার করা হচ্ছে। বাংলা এবং ইংরেজি উভয় মাধ্যমেই এই ব্যাখাগুলো www.facebook.com/MuslimResearchCentre পেজে নিয়মিত প্রচারিত হচ্ছে।

ইতিমধ্যে ঢাকার গুলশানে সঠিক নিয়মে কুরআন শিক্ষার উদ্যোগের পাশাপাশি একটি হেফজখানা প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ নিয়েছে মুসলিম রিসার্চ সেন্টার। সম্পূর্ণ আধুনিক উপায়ে কুরআন শিক্ষা ও হেফজখানাটি বাস্তবায়েনের দায়িত্ব নিয়েছেন আল্লামা হাফেজ ক্বারি আব্দুল জলীল। বর্তমানে আল্লামা হাফেজ ক্বারি আব্দুল জলীল গুলশানে একটি মসজিদে খতীব ও ইমামতির দায়িত্ব পালন করছেন।

এছাড়াও কুরআন এবং হাদিসের উপর উন্নতর গবেষনার লক্ষে দেশে বিদেশে ইসলামিক রিসার্চার নিয়োগ দিচ্ছেন মুসলিম রিসার্চ সেন্টার (এমআরসি)। একইসাথে কিভাবে নবী করিম (সাঃ) এর নির্দেশিত পথে মুসলিমরা জীবন যাপন করতে পারেন সেটি নিয়েও কাজ করবে প্রতিষ্ঠানটি।

করনাকালীন মহামারিতে সুবিধাবঞ্চিত ও বিপদগ্রস্থ্য আলেমদের পাশে দাঁড়িয়েছেন মুসলিম রিসার্চ সেন্টার (এমআরসি)। আলেমদের সাহায্য করার উপর বেশী গুরুত্ব দিচ্ছেন প্রতিষ্ঠানটি।

সম্প্রতি দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে মসজিদ ও এতিমখানা সংস্কার এবং জনবল নিয়োগ দিয়ে পুনরায় চালু করার উদ্যোগ নেয় মুসলিম রিসার্চ সেন্টার। এছাড়াও ব্যাক্তি বা প্রাতিষ্ঠানিক পর্যায়ে মানুষকে ইসলামিক পরামর্শ প্রদান, দান এবং মৃতদেহ দাফনেও কাজ শুরু করেছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

এ জাতীয় আরো খবর..

cover3.jpg”><img src=”https://www.bssnews.net/wp-content/uploads/2020/01/Mujib-100-1.jpg”>

via Imgflip

 

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি  © All rights reserved © 2011 Gnewsbd24
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazargewsbd451