বৃহস্পতিবার, ১৩ মে ২০২১, ০১:৫৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
বিরামপুর পৌরসভার মেয়রের দায়িত্ব পালনের বিষয়ে জানতে চেয়ে ইউএনও’র চিঠি রেলপথে হিলি স্থলবন্দর দিয়ে পেঁয়াজ আমদানি চলছে দৌলতপুরে প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের মাঝে ঈদ বস্ত্র বিতরণ ডোমার পৌর মেয়র এর নিজস্ব অর্থায়নে অসহায় মানুষের মাঝে ঈদ উপহার বিতরণ দিনাজপুরে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় মটরসাইকেল আরোহী নিহত ॥ মাইক্রো চালকসহ আহত ১০ মোড়েলগঞ্জে নিশানবাড়িয়া ও রামচন্দ্রপুরে প্রধানমন্ত্রীর সহায়তা বিতরণ বাগেরহাটে ঈদের প্রধান জামায়াত হবে ষাটগম্বুজ মসজিদে কালিয়াকৈরে ট্রাকের ধাক্কায় ভেঙ্গে গেল সরকারি স্কুল, জরিমানা আদায় দেশে করোনায় বেড়েছে মৃত্যু কমেছে শনাক্ত মাগুরার শ্রীপুরে প্রধানমন্ত্রীর উপহার বিতরণ করলেন সংসদ সদস্য শিখর

হিলি স্থলবন্দর দিয়ে চাল আমদানি কমেছে

মাসুদুল হক রুবেল, হিলি প্রতিনিধি (দিনাজপুর) :
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ১৬ এপ্রিল, ২০২১
  • ৩১ বার পঠিত

শতকরা ২৫ শতাংশ শুল্ক কর দিয়ে সরকারের স্বর্তাবলি মেনেই ৩৭০ থেকে ৪২৫ ডলারের মধ্যে প্রতি মেট্রিকটন চাল আমদানি করছে আমদানি কারকেরা। লক-ডাউনের কারনে এদিকে প্রকার ভেদে চালের দাম কেজিতে বেড়েছে দেড় থেকে ২ টাকা। নতুন করে আমদানির অনুমতি না পাওয়ায় হিলি স্থলবন্দর দিয়ে ভারতীয় চাল আমদানি কমতে শুরু করেছে।

স্বল্প সময়ের মধ্যে চালের বাজার মুল্য স্বাভাবিক রাখতে চাল আমদানির উপর গুরুত্ব আরোপ করেন সরকার। ফলে ১০ লাখ ১৭ হাজার ৫০০ মেট্রিক টন নন-বাসমতি চাল আমদানির অনুমতি পায় আমদানিকারকেরা। ফলে আমদানি কারকগন প্রচুর চাল আমদানি করায় বন্দরের পাইকারি বাজারে কেজিতে ৩/৪ টাকা কমে গেলেও পরে তা স্থিতিশীল হয়ে আসে।

এদিকে লক-ডাউনের কারনে গেলো তিন দিন থেকে কেজি প্রতি দেড় থেকে ২ টাকা বেড়ে যায় চালের দাম। সরকার আর নতুন করে চালের আমদানির অনুমতি না দেওয়ায় চালের আমদানি কমে গেছে। আর অল্প দিনেই চাল আমদানি বন্ধ হয়ে যাবে, বলছেন হিলি স্থলবন্দর আমদানি-রফতানি কারক গ্রুপের সভাপতি হারুন উর রশিদ হারুন।

এদিকে বন্দরের পাইকারি ক্রেতাগন বলছেন, লক-ডাউনে প্রভাব পড়েছে চালের বাজারে। গত তিন দিনের ব্যবধানে স্বর্না চাল প্রতি কেজি ২ টাকা দাম বেড়ে ৪১/৪২ টাকার চাল বিক্রি হচ্ছে ৪৩/৪৪ টাকায় । ২৮ চাল ৪৬টাকা থেকে ৪৮ টাকায়, সম্পাকাটারি ৫৫ টাকা থেকে ৫৬ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

হিলি পানামা পোর্ট লিংক লিমিটেড এর গন সংযোগ কর্মকর্তা সওরাব হোসেন মল্লিক প্রতাপ জানান, চাল আমদানি অনেকাংশে কমেছে। তিনি আমদানিকারকদের বরাত দিয়ে আরও জানান, সরকার থেকে যতটুকু চাল আমদানির অনুমতি দিয়েছে তার অতিরিক্ত আর নতুন করে হয়তোবা আর অনুমতি আসছে না।

হিলি কাষ্টমস সুত্রে জানা যায়, গত ৯ জানুয়ারি থেকে ১৩ এপ্রিল পর্যন্ত ৩ মাস ৫ দিনে ১ লাখ ৪৫ হাজার ৬৩৫ মেট্রিক টন চাল আমদানি হয়েছে হিলি স্থলবন্দর দিয়ে। আর এর বিপরিতে রাজস্ব এসেছে ১২৯ কোটি ১৮ লাখ ৪৫ হাজার টাকা। ও দিকে সরকার শতকরা ২৮ থেকে ৬০ শতাংশ চালের শুল্ক হার বৃদ্ধি করায় গত ২০১৯ সালের মার্চ মাস থেকে চাল আমদানি বন্ধ হয়ে যায়।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

এ জাতীয় আরো খবর..

cover3.jpg”><img src=”https://www.bssnews.net/wp-content/uploads/2020/01/Mujib-100-1.jpg”>

via Imgflip

 

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি  © All rights reserved © 2011 Gnewsbd24
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazargewsbd451